কালীগঞ্জে ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি রহস্য উন্মোচন ॥ স্ত্রীর বাপের বাড়ি থেকে ১২লাখ টাকা উদ্ধার

নয়ন খন্দকার, কালীগঞ্জ॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ব্যবসায়ী লিটনের বাড়িতে ডাকাতি ঘটনার রহস্য উন্মোচন ও লুন্ঠিত ১২ লাখ টাকা উদ্ধার হয়েছে। সোমবার ব্যবসায়ীর স্ত্রী ডাকাতি নাটকের মুলহোতা দিপ্তী খাতুনের বাপের বাড়ী মহেশপুর উপজেলার ভৈরবা থেকে তার মাতার ঘরের মাটি খুড়ে টাকা গুলি উদ্ধার করা হয়।
কালীগঞ্জ শহরের ভূসিমাল ব্যবসায়ী ইব্রাহিম খলিল লিটন জানায়, গত বৃহস্পতিবার ন্যাশনাল ব্যাংক থেকে ১২ লাখ টাকা তুলে বাড়িতে রাখেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে লিটন বাড়ীতে না থাকায় তার ২য় স্ত্রী মোবাইলে জানায় একদল ডাকাত ভাগ্নে পরিচয়ে বাড়িতে প্রবেশ করে তাকে জখম করে সমস্ত টাকা ও গয়না লুট করে নিয়ে গেছে। কিন্তু এ ডাকাতির ঘটনায় আশেপাশের লোকজন কোন হট্টগোল, চিৎকার বা কাউকে না দেখায় ডাকাতি নিয়ে সবার মাঝে ২য় স্ত্রীকে নিয়ে সন্দেহ সৃষ্টি হয়। ব্যবসায়ী লিটনেরও সন্দেহ হলে সোমবার তার ২য় স্ত্রী দিপ্তি ও শাশুড়ীকে ধরে একটি ঘরে আটকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে মুল রহস্য বেরিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদে ব্যবসায়ীর স্ত্রী দিপ্তী স্বীকার করেছে ১২ লাখ টাকার ব্যাগ সরিয়ে রেখে সে নিজের কপাল ও গলা বেল্ড দিয়ে কেটে ডাকাতির ঘটনা সাজিয়েছেন। এরপর ডাকাতি নাটকের মুলহোতা স্ত্রীর দেওয়া তথ্যমতে তার বাপের বাড়ী মহেশপুর ভৈরবার মায়ের ঘরের মাটি খুড়ে ১২ লাখ টাকা পাওয়া যায়। ব্যাবসায়ী লিটন জানায় এ ঘটনা উন্সোচনের পর তার ২য় স্ত্রীকে তালাক দিয়েছেন।
কালীগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ মনির উদ্দিন মোল্ল্যা জানান, পাতানো ডাকাতির ঘটনায় টাকা উদ্ধারের বিষয়টি তিনি জেনেছেন ।

শেয়ার