হরতালে হত্যার বিচারও একদিন করব : প্রধানমন্ত্রী

PM01
সমাজের কথা ডেস্ক॥ হরতালে প্রাণহানীর জন্য বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়াকে দায়ী করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘কোনো এক দিন’ এই হত্যারও বিচার হবে।
মঙ্গলবার গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় এক জনসভায় বিরোধী দলীয় নেতার সমালোচনা করে তিনি বলেন, “মুসলমান হয়ে কীভাবে আরেক মুসলমানকে পুড়িয়ে মারতে পারে। এসব হত্যার দায় তাকেই নিতে হবে। কোনো না কোনো দিন এ হত্যার বিচারও আমরা করব।”
নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনরত বিএনপি ও তাদের শরিকরা গত দুই সপ্তাহে ছয় দিন হরতাল করার পর গত রোববার থেকে আরো ৮৪ ঘণ্টার জন্য একই কর্মসূচি পালন করছে।
এই হরতালকে ঘিরে সারা দেশে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন বলে জনসভায় উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।
নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে বিএনপির এই আন্দোলনেরও সমালোচনা করেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ভোটের মালিক জনগণ। আমরা জনগণের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে চাই। বিএনপি ভোট কারচুপি করতে পারবে না- সেই জন্য বলছে ইলেকশন করবে না।”
বর্তমান সরকারের সময়ে হওয়া প্রায় ছয় হাজার নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “একটা নির্বাচন নিয়ে তো কথা বলতে পারে নাই। আওয়ামী লীগ কারচুপিতে বিশ্বাস করে না।”
প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা, অর্থনীতি, বিদ্যুতসহ বিভিন্ন খ্যাতে সরকারের সাফল্যগুলো তুলে ধরেন এবং আগামী নির্বাচনে আবারো আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করার জন্য গোপালগঞ্জবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, “আমরা ক্ষমতায় আসলে আশা করি কেউ আর কুড়ে ঘরে থাকবে না। আমরা চেষ্টা করছি দেশের প্রত্যেক নাগরিক যেন অন্তত টিনের ঘরে থাকতে পারে।”
প্রতিবারের মতো এবারো নির্বাচনের আগে নিজের এলাকা গোপালগঞ্জের মানুষের কাছে ভোট ও দোয়া চান আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।
তিনি বলেন, “ক্ষমতা দেয়ার মালিক আল্লাহ। ক্ষমতা নেয়ার মালিক আল্লাহ। আল্লাহ সুযোগ দিলে জনগণের জন্য কাজ করে যাব। আমাকে ইলেকশনের জন্য ঢাকায় থাকতে হয়। আমার দায়িত্ব আপনাদেরকেই দিয়ে গেলাম। আমার বাবা-মা নেই। আপনাদের কাছেই দায়িত্ব দিয়ে গেলাম।”

শেয়ার