১৮ দলীয় জোটের হরতালে ১৮ নেতাকেও দেখা যায়নি যশোরের রাজপথে

Hortal
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বিএনপির ডাকা জনদুর্ভোগের ৮৪ ঘন্টা হরতালে সাড়া দেয়নি যশোরের মানুষ। রোববার থেকে শুরু হওয়া এ হরতালে মাঠে ছিল না বিএনপির কোন নেতা। এমকি ১৮ দলীয় জোটের নামে হরতাল ডাকা হলেও ১৮ জন নেতাকেও দেখা যায়নি শহরের রাজপথে। কয়েকটি স্থানে উদ্ভট শ্রেণীর ১২/১৩ বছরের ছেলেদের দিয়ে চলাচলকারী যানবাহন থামিয়ে জনগণের ভোগান্তি দেয়া ও জনগণকে ভয়ভীতি দেখানো হয়।
তবে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশের নজরদারি থাকায় কোথাও কোন বড় ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এদিকে সন্ত্রাস বিরোধী মিছিল করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। এতে নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপতি আলী রেজা রাজু। হরতাল প্রত্যাখ্যান করে শহরে পালবাড়ি, চাঁচড়া, মনিহার এলাকা, চৌরাস্তা মোড়, চারখাম্বা মোড়, দড়াটানা, খাজুরা স্ট্যান্ডের ব্যবসায়ীরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখেন। শহরে রিকসা, ভ্যান ও ইজিবাইক চলাচল ছিল স্বাভাবিক। অফিস আদালত, ব্যাংক বীমা ছিল খোলা। লেনদেন হয়েছে অন্যদিনের মতোই। কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম রহমান জানান, সকাল থেকেই আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে অবস্থান নিয়ে থাকায় জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীরা তেমন কোনো বিশৃঙ্খলা ঘটাতে পারেনি। তবে দু’একটি স্থানে তারা পিকেটিংয়ের চেষ্টা চালায়। তবে মাঠে ছিল না বিএনপির কোন নেতা। এমনকি কোন কর্মসূচিতে অংশ নেয়নি জামায়াত শিবিরের নেতারা। এদিকে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলী রেজা রাজুর নেতৃত্বে গাড়ীখানা রোড়ের দলীয় কার্যালয়ে বেলা ১১টার দিকে হরতাল বিরোধী মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করে। এসময় নেতাকর্মীরা হরতাল বিরোধী নানা স্লোগান দেন। এতে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার