যশোরে বোমা হামলার ঘটনায় যুবদল কেন্দ্রীয় নেতা রিপন চৌধুরীসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে প্রাইভেটকার চালকের উপর বোমা হামলা ও গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় মামলা হয়েছে। যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতা চৌধুরী রাজিব হাসান রিপনসহ ২০ জনের নামসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়। শহরের পুরাতন কসবা কাজীপাড়ার আবুল বাসারের ছেলে জাকির হোসেন শুক্রবার রাতে কোতোয়ালি মডেল থানায় এ মামলা করেন। অপর আসামিরা হলো, উপ শহরের বুলবুল আহম্মেদ, এফ ব্লকের দাঁতাল রনি, নূরুন্নবী, জেল রোডের কামাল হোসেন, ঘোপ সেন্ট্রাল রোডের ফরিদ আহম্মেদ, আর এন রোডের সাগর, বেজপাড়া নলডাঙ্গা রোডের কালো মিন্টু, সার্কিট হাউজপাড়ার শরিফুল ইসলাম হ্যাট্টিক, মাসুম, স্টেডিয়াম পাড়ার শিমুল, শংকরপুর মুরগি ফার্ম এলাকার কাশেম আলী, টালিখোলার ইয়ামিন, পালবাড়ির নান্নু, বারান্দীপাড়ার জামাল হোসেন, সদর উপজেলার সাড়াপোলের বিল্লাল ও মাসুদ, খোলাডাঙ্গা গ্রামের নাছির উদ্দিন, কাসার দীঘিরপাড়ের অনু ও নারাঙ্গালী গ্রামের শাহিন।
পুলিশ জানায়, ৬ নভেম্বর বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা হরতালের সময় চালক জাকির হোসেন (ঢাকা মেট্রো খ-১১-১৯০২) নম্বর প্রাইভেটকারে সদর হাসপাতাল থেকে রোগী নিয়ে শহরতলীর ঝুমঝুমপুর থেকে চিত্রামোড়ে আসেন। চিত্রমোড়ে গাড়ি রেখে তিনি চা-পান করতে দড়াটানা মোড়ে যান। এ সময় রিপন চৌধুরীর নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসীরা হাতে বোমা, দেশি ও বিদেশি অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে তার উপর হামলা চালায়। ওই সন্ত্রাসীদের ছোড়া বোমায় জাকির হোসেন মারাত্মকভাবে আহত হন। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

শেয়ার