৯.১১.১৩

odd
বাংলানিউজ ॥
ভুল করে শিরোনাম না দিয়ে এ সংখ্যাগুলো আপলোড করা হয়েছে-অনেকেই ভাবতে পারেন। পাঠক না। একটু মনে করে দেখুন, আজকে ৯ নভেম্বর, সাল ২০১৩।
বেজোড় সংখ্যার জয়গান। তারিখ, মাস, বছর সবাই বেজোড় সংখ্যার। আর এগুলো হচ্ছে ধারাবাহিক বেজোড় সংখ্যা।
এ রকম খুব সচরাচর হয় না। প্রতি ১০০ বছরে পাঁচবার এ ধরনের ধারাবাহিক বিপরীত সংখ্যার সাক্ষাৎ পাওয়া যায়।
৯২ বছরের মধ্যে শেষবারের মতো সাক্ষাৎ পাওয়া গেল ধারাবাহিক এ বেজোড় সংখ্যার। একবিংশ শতাব্দির চূড়ান্ত ‘বেজোড় দিবস‘ (অড ডে) হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।
দিনটি উদযাপনের জন্য মার্কিন এক গণিতপ্রেমী একটি ওয়েবসাইটও খুলেছেন। আর দিনটি জাকজমকভাবে উদযাপনের জন্য যে ব্যক্তি সবচেয়ে আকর্ষনীয় ধারণা দেবেন তাকে দেবেন ৯১১.১৩ ডলার।
ক্যালিফোর্নিয়ার রেডউড শহরের সাবেক স্কুল শিক্ষক রন গর্ডন হচ্ছেন দিবসটি উদযাপনে এ অতি উৎসাহী ব্যক্তি। এই দুর্লভ দিনটি সাধারণ মানুষে হাসির খোরাক জোগাতে পারে।
তিনি বলেন, ‘এসব দিন হচ্ছে দিনপঞ্জি ধূমকেতুর মতো। এ দিনগুলোর জন্য আপনাকে অপেক্ষা আর অপেক্ষা করতে হবে, তারপর তারা আলো ছড়াবে এবং প্রমাণ করবে যে তারা এসেছে।’
কিন্তু রন গর্ডেনের আনন্দে একটু ফিকে রয়েছে। কেননা তার দেশে প্রথমে মাস, মাঝে তারিখ ও শেষে লেখা হয় বছর। অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রের রীতি অনুযায়ী ২০১৩ সালের ৯ নভেম্বর লেখা হচ্ছে, ১১/৯/১৩।
সংখ্যাতাত্ত্বিকরা দাবি করেন, বেজোড় দিবসগুলো গুরুত্ব বহন করে এবং অনেকের জন্য পরিবর্তনের বাতায় বয়ে আনে।

শেয়ার