সিরিয়া শান্তি সম্মেলন স্থগিত

Unitednation
বাংলানিউজ॥ সিরিয়া বিষয়ে জেনেভাতে এ মাসে যে শান্তি সম্মেলন করার কথা ছিল তা স্থগিত হয়েছে বলে জানালেন সিরিয়াসংক্রান্ত জাতিসংঘ ও আরব লিগের দূত লাখদার ব্রাহিমি।
তবে এ মাসে শান্তি সম্মেলন না হলেও তিনি এ বছরের শেষের দিকে শান্তি বিষয়ে একটি শীর্ষ বৈঠক আয়োজনের চেষ্টা চালাচ্ছেন।
মঙ্গলবার জেনেভায় জাতিসংঘের দফতরে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের রাজনীতি বিষয়ক উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েন্ডি শারমেন, রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিখাইল বোগদানভ ও গেন্নাদি গাতিলভের সঙ্গে বৈঠকের পরে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।
ব্রাহিমি জানিয়েছেন, এরপরও তিনি আগামী ২৫ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার কূটনীতিকদের সাথে সাক্ষাৎ করবেন ও জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের তিন স্থায়ী সদস্য চীন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্য এবং সিরিয়ার প্রতিবেশী লেবানন, জর্ডান, ইরাক ও তুরস্কের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।
সাংবাদিকদের তিনি বলেন, আমরা আশা করেছিলাম একটি নির্দিষ্ট অবস্থানে এসে একটি তারিখ ঘোষণা করতে পারব। কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে আমরা পারিনি। কিন্তু আমরা আশা করছি এ বছরের শেষের দিকে সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হবে।
এর আগে ব্রাহিমি বলেছিলেন, জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন শান্তি সম্মেলনের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। আর সিরিয়ার অবস্থাও প্রতিনিয়ত খারাপ হচ্ছে। প্রতিদিন ৬ হাজার মানুষ দেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছেন।
এদিকে সিরিয়া জানিয়েছিল, জেনেভা সম্মেলনের উদ্দেশ্য যদি দেশটির প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয় তাহলে তারা এ সম্মেলনে অংশ নেবে না। অন্যদিকে সিরিয়ার বিদ্রোহী পক্ষ জানিয়েছে, যেকোনো ধরনের সমঝোতার পূর্বেই বাশারকে পদত্যাগ করতে হবে।
আবার রাশিয়া মঙ্গলবার জানিয়েছে, সম্মেলনে মিত্র দেশ ইরানকে অবশ্যই উপস্থিত থাকতে হবে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া এখনও এ ব্যাপারে মতৈক্যে পৌঁছাতে পারেনি।
জাতিসংঘের প্রদত্ত তথ্য অনুযায়ী ২০১১ সালের পর থেকে সিরিয়ায় সংকটে এক লাখের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। ২০ লাখ মানুষ দেশ ছেড়ে গেছেন। বেশিরভাগই শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিয়েছেন পাশের দেশ লেবানন, জর্ডান, তুরস্ক, ইরাক ও মিশরে।

শেয়ার