আজ দু’দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী উদ্বোধন করবেন শ্রেষ্ঠ ৩ বাঙালির ম্যুরাল ও রিট্রেট শিরিমনি ॥ বেনাপোলে সাজ সাজ রব

sirimoni
বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি॥ দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর আজ বুধবার দুপুরে আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে উদ্ভোধন হচ্ছে শ্রেষ্ঠ ৩ বাঙালির ম্যুরাল ও দু’দেশের সীমান্ত রক্ষীদের সম্মিলিত প্যারেন্ড গ্রাউন্ড রিট্রেট শিরোমনি। দু -দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী যৌথভাবে রিট্রেট শিরোমনি উদ্বোধন করবেন। বৈরী আবহাওয়ার কারণে গত ২ অক্টোবর স্থাগিত করা হয় আনন্দ- উৎসব বিনোদন কেন্দ্র (রিট্রেড শিরোমনি) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ম্যুরাল উদ্বোধন। উদ্ভোধন অনুষ্ঠানকে ঘিরে বেনাপোলে চলছে সাজ সাজ রব। উদ্বোধনী অনুষ্টানের প্র¯ু—তি সম্পুন্ন হয়েছে। চেকপোষ্টে নির্মিত হয়েছে ২টি প্যান্ডেল। বিজিবি ক্যাম্প দেয়ালে করা হয়ে কারুকার্য্য। পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন এপার বঙ্গপ্রান্তে প্রধান সীমান্ত ফটকে দৃষ্টিনন্দন পাহাড়ী ঝর্না নির্মান করেছেন। ইতিমধ্যে বিজিবি ও বিএসএফ এর প্রস্তুতি মূলক যৌথ প্যারেড প্রদর্শিত হয়েছে। ব্যান্ড ও বিউগল বাজিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে শুভ সুচনা করা হবে রিট্রেট শিরোমনির।
যশোর ২৬বিজিবি ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক মতিউর রহমান জানায়, প্রতিদিন বর্ডার গার্ড বিজিবি ও সীমান্তরক্ষী বিএসএফ সদস্যরা সেখানে আনুষ্ঠানিক কুচকাওয়াজ করবেন। প্রতিদিন সকালে কুচকাওজের মধ্য দিয়ে একই সঙ্গে দু’দেশের পতাকা উঠানো হবে। বাজবে দু’দেশের জাতীয় সঙ্গীত। এরপর শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে শুরু হবে পাসপোর্ট যাত্রী চলাচল ও দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য। সন্ধ্যায় আবার একই নিয়মে পতাকা নামিয়ে দু’দেশের নিরাপত্তা গেট সৈনিকেরা বন্ধ করে দিবসের কার্যক্রম শেষ করবেন। মোট ৩০ মিনিটের অনুষ্ঠানের মধ্যে ১৮ মিনিট সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বাকি সময় কুচকাওয়াজের পাশাপাশি দু’দেশের যৌথ সাংস্কৃতিক মঞ্চে বেজে উঠবে রবীন্দ্রসঙ্গীত ও নজরুলগীতি। ভারত-বাংলাদেশ পেট্রাপোল সীমান্তে এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন দুই বাংলার সাধারণ মানুষ, সামিল হবে শিল্পীমনা ছাত্র-ছাত্রীরা। ভারত-পাকিস্তানের ওয়াগা-আট্টারি সীমান্তে যেভাবে জাতীয় পতাকা নামিয়ে আনা হয়, দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বুটের আওয়াজে প্রকম্পিত হয় এলাকা। বেনাপোল সীমান্তেও ঠিক তেমনটি হবে। এছাড়া দুদেশের সাধারণ মানুষ একটি নিয়মের মধ্য দিয়ে সেখানে মত বিনিময় ও আনান্দ উপভোগ করার সুযোগ পাবেন। বাড়বে বিজিবি-বিএসএফের সৌহার্দ সম্প্রতি। দু দেশের সম্পর্ক উন্নয়ন আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে।
ম্যুরাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে এবং বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহিউদ্দিন খান আলমগীর। এছাড়া আরো থাকবেন ভারত-বাংলাদেশের বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী, বিজিবি ও বিএসএফ পরিবারের শিশু শিল্পী এবং দুই দেশের প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা।
বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন- চেকপোষ্টের বাংলাদেশ গেটে নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ও জাতীয় কবি নজরুলের ম্যুরাল উদ্বোধনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বাংলাদেশে গেটে নির্মিত এপার বাংলার শ্রেষ্ঠ তিন সন্তানের ম্যুরাল বাংলার ঐতিহ্যকে বিশ্বের দরবারে পরিচিত করতে ভূমিকা রাখবে। বাংলার বাউল, সুন্দরবন, রয়েল বেঙ্গল টাইগার, স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত শহীদের প্রতিকৃতি সহ দৃষ্টিনন্দন সাজে সাজানো হয়েছে বেনাপোল সীমান্ত এলাকা যা বিশ্বের মানুষের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ফুটে উঠবে।
শিক্ষক আহসান উল্লাহ বলেন, মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বেনাপোলকে সুন্দরভাবে সাজাচ্ছেন। বেনাপাল সীমান্তে আসলে মনে হয় সমগ্র বাংলাদেশের অপর মহিমা। দৃষ্টিনন্দন কারুকাজ দেশ বিদেশের মানুষকে মুগ্ধ করছে। তার সাথে নতুন সংযোগ হচ্ছে রিট্রেট শিরোমুনি। যা বহির্বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিকে আরো বাড়িয়ে দেবে। ——–
কলেজ ছাত্র আব্দুর রাকীব বলেন, বেনাপোল সীমান্ত এলাকা যে ভাবে সেজেছে দেখে মনে হচ্ছে আজ ঈদ।

শেয়ার