যশোরে হরতালের প্রথম দিন মাঠে ছিল না ১৮ দল ॥ আওয়ামী লীগের হরতাল বিরোধী মিছিল

Fonto
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ ৬০ ঘন্টার হরতালের প্রথম দিন সোমবার যশোরের রাজপথে ছিল না ১৮ দলের নেতাকর্মীরা। সকাল থেকেই আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে ছিল রাজপথ। আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা হরতাল বিরোধী মিছিল করেছে। দড়াটানায় একটি ককটেল বিস্ফোরণে একজন আহত হওয়া ছাড়া আর কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পওয়া যায়নি।
হরতালকে ঘিরে সোমবার সকাল থেকেই রাজপথে ছিল কড়া পুলিশ প্রহরা। পুলিশ হরতাল সমর্থকদের রাজপথে দাঁড়াতেই দেয়নি। তবে শহরে হরতালবিরোধী একাধিক মিছিল হয়েছে। আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো এ খণ্ড খণ্ড মিছিল করেছে। শহরে কম সংখ্যক রিকসা, ভ্যান চললেও দোকানপাট ছিল বন্ধ। অফিস আদালত খোলা থাকলেও লোক সমাগম ছিল কম।
হরতাল বিরোধী বিােভ মিছিল করেছে জেলা ছাত্রলীগ। বেলা ১টার দিকে শহরের চিত্রামোড়স্থ দলীয় কার্যালয় চত্বর থেকে মিছিলটি বের হয়। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদণি শেষে দড়াটানায় শেষ হয়। সেখানে এক সংপ্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম মাহমুদ হাসান বিপু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, সাবেক কাউন্সিলর সন্তোষ দত্ত প্রমুখ। সমাবেশ থেকে জামায়াত-শিবির ও বিএনপি’র নৈরাজ্যে মোকাবেলায় জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানানো হয়।
অপরদিকে হরতালে মাঠে দেখা যায়নি ১৮ দলের নেতাকর্মীদের। পুরো মাঠ জুড়ে ছিল আইন শৃংখলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে।
কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক জানান, যশোরে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বজায় রয়েছে কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। শহরের বিভিন্নস্থানে পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি টহলও রয়েছে।

শেয়ার