চিতলমারীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ॥ আহত ২৫

বাগেরহাট প্রতিনিধি॥ বাগেরহাটের চিতলমারীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আ’লীগের দু’পরে সংঘর্ষে মহিলা ও শিশুসহ প্রায় ২৩ জন আহত হয়েছে। রোববার সকালে উপজেলার চরচিংগুরিয়া এলাকয় এ রক্তয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যদর্শী সূত্রে জানা গেছে, রোবরার সকালে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উপজেলার কলাতলা ইউনিয়নের চরচিংগুরি গ্রামের ইউপি সদস্য বাদশা গ্রুপ এবং মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে উভয় প একে অন্যের উপর ঝাঁপিয়ে পড়লে উভয় পক্ষের প্রায় ২০ জন গুরুতর আহত হন।
আহতরা হলেন, একলাছ গ্রুপের রুস্তম আলী শেখ (৬০), আলকাম শেখ (৫০), সোহেল শেখ (১৬), এমামুল হক (২৫), কায়সার আলী শেখ (৬০), চান্দু শেখ(২২), মনোয়ারা বেগম (৩৫), হাবিবুর রহমান (৬০), নাদিরা আক্তার (১৫), জেসমিন আক্তার (১২), পারভিন আক্তার (১৭), আলমগীর শেখ(৩৮), রফিকুল ইসলাম এবং বাদশা মেম্বর গ্রুপের সোহেল শেখ (২০), সোহাগ (৩০), টুকু শেখ (২৫), জিল্লুর শেখ (৩০), কামরুল (২৬), রুবেল শেখ (২০), রমজান শেখ (২৮), জাহিদ শেখ (৩০), আক্কেল মোল্লা (২২) ও তিনু শেখ (৩২)।
আহতদের চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্র, টুঙ্গিপাড়া, মোল্লাহাট, গোপালগঞ্জ ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য বাদশা শেখ কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।
চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মোল্লা জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এ ঘটনায় দেশীয় অস্ত্র, ঢাল, সড়কি ও লাঠিসোটাসহ উভয় পরে ৬ জনকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার