মণিরামপুরে জামায়াত-বিএনপির হামলায় আ’লীগের ৫০ নেতা-কর্মী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, মণিরামপুর॥ শুক্রবার মণিরামপুরে আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে বিএনপি জামায়াতের অবরোধের মুখে পড়ে রাতে বাড়ী ফেরার পথে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জামায়াত-বিএনপি ক্যাডারদের হামলায় ৫০ জন আ’লীগের নেতা কর্মী আহত হয়েছে।
জানাযায়, কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শুক্রবার উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাড. খান টিপু সুলতান প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। সমাবেশ শেষে পৌর শহরে বিশাল এক মিছিল প্রদক্ষিনকালে জামায়াত বিএনপির ক্যাডাররা হামলা চালায়। এরপর বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা নেতা কর্মীরা বাড়ি ফেরার পথে পুনরায় হামলার শিকার হয়। আহতদের মধ্যে ১৭ জনকে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকীদের বিভিন্ন কিনিকসহ স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানাগেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সমাবেশ শেষে বাড়ী ফেরার পথে উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে বেরিকেড দিয়ে বিএনপি ও জামায়াতের ক্যাডাররা হামলা চালিয়ে নেতা কর্মীদের জখম করে। আহতদের মধ্যে যাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এর মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে তারা হলেন আজগর আলী (৩০), মুকুন্দ (২৬), আব্দুল লতিফ (৩২), ফরিদুল (২০), হিদায়েত (৩৮), জাহাঙ্গীর (৩৫), শামিম (২৬), শাহিনুর (১৩), রমজান (১৪), হাবিবুর (১৭), ই¯্রাফিল (১৪), ইব্রাহিম (১৫), টুটুল (২০), ইউনুস আলী (৪০), বাবলু (২৬), রবিউল ইসলাম (৪০) ও নজরুল ইসলাম (৩০)। এছাড়া উপজেলার শেখপাড়া খানপুর, সাতনল ও গোপালপুর এলাকায় জামায়াত বিএনপির হামলায় নাজমুল (২৭), সিদ্দিক হোসেন (৩২), আবু তালেব (৪৫), আজিজুর (২৩), ফারুক (২৭), রাশেদ (১৬), ভুট্টো (১৮), মামুন (২০), মুকুল (২৭) সহ অর্ধশত নেতা কর্মী আহত হয়। পুলিশ জানিয়েছে এসব হামলার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।

শেয়ার