নির্দলীয় সরকার মেনে নিলে সংলাপের দরকার কী

obaidulkader
বাংলানিউজ ॥
নির্দলীয় সরকার মেনে নিলে সংলাপের দরকার কী- এমন মন্তব্য করে আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিরোধীদলীয় নেতা বলছেন নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে না নিলে সংলাপে অংশগ্রহণ করবেন না।
শনিবার বিকেলে জেলা শহর মাইজদীর টাউন হল চত্বরের প্রধান সড়কে জেলা আ’লীগ আয়োজিত বিােভ ও প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
২৫ অক্টোবর জেলা আ’লীগ অফিসে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের মিছিল থেকে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে এ বিােভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির অংশগ্রহণ ছাড়া সর্বদলীয় সরকার গঠন করবে না আ’লীগ। বর্তমান সরকার জ্বালাও-পোড়াওতে বিশ্বাসী নয়, তাই বিরোধীদলের নেতাকে ফোন করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নৈশভোজের নিমন্ত্রণ করেছে এবং দেশের মানুষের শান্তির কথা চিন্তা করে সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন।
মন্ত্রী বলেন, বিরোধীদল সাধারণ মানুষের মঙ্গল চান না, দেশের অর্থনীতিকে ভঙ্গুর করতে, শিার্থীদের শিা জীবনকে বিপন্ন করতে, ব্যবসায়ীদের ধ্বংস করতে সাধারণ মানুষের উদ্বেগ-উৎকন্ঠাকে বাড়িয়ে দিয়ে ১৬ কোটি মানুষের ওপর নতুন নির্যাতনের খড়গ চালাতে পুনরায় হরতালের ডাক দিয়েছেন।
তিনি আরো বলেন, যারা পৌনে পাঁচ বছর হরতাল করে বর্তমান সরকারকে মতাচ্যুত করতে পারেনি, তারা তিন মাস হরতাল দিয়েও তা পারবে না। তিনি আরও বলেন, শর্ত দিয়ে সংলাপ হয় না, সংঘাত-সহিংসতায় সমঝোতা হয় না।
বিরোধীদলীয় নেতাকে উদ্দেশ্য করে যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, আপনার ফোনালাপের মাধ্যমে জনগণ দেখেছে ভদ্রতা, বিনয়, শালীনতার প্রকাশে সংলাপের সদিচ্ছা আছে কিনা? আমরাতো সংলাপ বিষয়ে এখনও কোনো জবাব পেলাম না। অপোয় আছি, কিন্তু ১৬ কোটি মানুষ ওপর তিনদিনের নতুন হরতাল নির্যাতনই কী সংলাপের জবাব?।

শেয়ার