টিকেট না পাওয়ায় ভাংচুর, সংঘর্ষে আহত ২৫

Narayngonj
সমাজের কথা ডেস্ক॥
ফতুল্লায় বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ওয়ানডে ম্যাচের টিকেট না পেয়ে নারায়ণগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে ক্রিকেটপ্রেমী তরুণরা।

শুক্রবার সকালে এই সংঘর্ষ চলাকালে বিক্ষুব্ধরা টিকেট বিক্রির দায়িত্বে থাকা ইউসিবি ব্যাংক ও কয়েকটি দোকানের কাচ ভাংচুর করে।

এ সময় তারা সড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলে। সংঘর্ষে আহত হন অন্তত ২৫ জন।

পরে পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ভাংচুরে জড়িত থাকার অভিযোগে ছয় জনকে আটক করা হয়েছে বলেও নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ৩ নভেম্বর ফতুল্লা ম্যাচের টিকেটের জন্য শুক্রবার ভোর থেকেই চাষাঢ়ায় ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) মানকে কয়েক হাজার ক্রিকেটপ্রেমীর ভিড় জমে যায়।

কিন্তু সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ‘আজ টিকেট দেয়া হবে না’ লেখা নোটিশ টাঙিয়ে দিলে টিকেটপ্রত্যাশীরা ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে।

এক পর্যায়ে তারা ঢিল ছুড়ে ব্যাংকের কাচ ভাংচুর করে এবং চাষাঢ়ায় বঙ্গবন্ধু সড়ক অবরোধ করে বেশ কয়েকটি যানবাহন ভাংচুর করে।

এ সময় পুলিশ বাধা দিলে দুপক্ষের মধ্যে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। এক পর্যায়ে পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

ওসি জানান, পুলিশের ধাওয়ায় বিক্ষোভকারীরা সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শহরের চাঁদমারী এলাকায় সরে যায় এবং ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোড অবরোধ করে। পরে পুলিশ গিয়ে সেখান থেকেও তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

ইউসিবি ব্যাংকের নোটিসে বলা হয়, ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় একদিনের আর্ন্তজাতিক ম্যাচের টিকেট শুধুমাত্র আগামী ২ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ শাখা, টানবাজার থানা সংলগ্ন এবং চাষাঢ়া শাখা থেকে বিক্রি করা হবে। ১ নভেম্বর কোনো টিকেট বিক্রি হবে না।

চাষাঢ়া এলাকার বাসিন্দা আহম্মেদ হোসেন অভিযোগ করেন, তাদের কয়েক দফা ঘোরানোর গত ২৭ অক্টোবর ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানায়, শুক্রবার টিকেট বিক্রি হবে। কিন্তু সকালে গেল তাদের বলা হয় অন্য কথা।

“অথচ কালোবাজারে ঠিকই বিক্রি হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে খেলা হবে, অথচ আমরা টিকেট পাবো না!”

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের বলেন, “ব্যাংক বলছে, বিসিবি থেকে তাদের টিকেট দেয়া হয়নি। বিসিবি থেকে টিকেট পেল তারা বিক্রি করবেন।”

এ বিষয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শেয়ার