কেশবপুরে পাকা সড়ক কেটে দেয়ায় আড়াই হাজার বিঘা জমির ফসল নষ্ট

Keshobpor
নিজস্ব প্রতিবেদক, কেশবপুর ॥ কেশপুরের কপোতা পাড়ের পানিবন্দি এলাকার কেশবপুর-বগা পাকা সড়ক বুধবার ভোর রাতে দূর্বৃত্তরা কেটে দেওয়ায় বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের আরও ৫টি গ্রাম নতুন করে প্লাবিত হয়েছে। পানি ঢুকে ২ হাজার ৫০০ বিঘা উঠতি আমন ধান ও সবজি তে তলিয়ে গেছে। পানি বন্দি হয়ে পড়েছে আরও ১ হাজার পরিবার। মথুরা বিলের সাথে জলাবদ্ধতার পানি এক হয়ে যাওয়ায় বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নটি এখন কেশবপুরের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।
সরেজমিন এলাকায় গিয়ে দেখাযায়, কেশবপুর-বগা সড়কের বগা বিলের মাঝামাঝি স্থানে বুধবার ভোর রাতে কে বা কারা সড়ক কেটে দেয়। কেটে দেওয়া স্থান দিয়ে বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের উত্তর পাশের জলাবদ্ধতার পানি দণিপাশে ঢুকে পড়ছে। মুহূর্তের ভেতর বগা, মহাদেবপুর, রেজাকাটি, মোমিনপুর, ফতেপুর, খপদই ও হাড়িয়াঘোপ বিলে পানি ঢুকে কৃষকের প্রায় ১ হাজার ৫০০ বিঘা জমির আধাপাঁকা আমন ধান তলিয়ে গেছে। তিগ্রস্থ হয়েছে আরও ১ হাজার বিঘা েেতর সবজি। বগা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা তৌহিদুর রহমান জানান, দীর্ঘদিন এলাকার মানুষ ওই রাস্তাটি পাহারা দিয়ে রাখত। সুযোগ বুঝে দুর্বৃত্তরা রাস্তা কেটে তাদের এলাকায় পানি ঢুকিয়ে দিয়েছে। সফসেকেনপুর গ্রামের কৃষক প্রবীর দাসের ৩ বিঘা, রেজাকাটি গ্রামের আব্দুর রশিদের ৩ বিঘা, কালাম গাজীর ২ বিঘা, মোমিনপুর গ্রামের করিম সরদারের ৭ বিঘাসহ শত শত কৃষকের েেতর ধান পানির নিচে চলে গেছে।
বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কে এম খলিলুর রহমান বলেন, রাস্তা কেটে দেয়ার কারণে ফতেপুর, খফদই ও হাঁড়িয়াঘোট গ্রাম নতুন করে প্লাবিত হয়ে আরও ১ হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। পাশ্ববর্তি মথুরা বিলের পানির সাথে জলাবদ্ধতার পানি এক হয়ে গিয়ে বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন পানির দ্বীপে পরিণত হয়েছে। তিনি আরও জানান তার ইউনিয়নের ২৪টি গ্রামের ভেতর এখন ১৮টি গ্রামের মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়ল। এলাকার কৃষকের ধান ও সবজি েেতর অফুরন্ত তি হয়েছে। সড়ক কেটে দেওয়ায় এলাকার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ার কারণে আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা করেন। উপজেলা কৃষিকর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার দাস বলেন, রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করা না হলে যেভাবে পানি ঢুকছে তাতে ওই এলাকার কৃষকের অবশিষ্ট েেতর ফসল মারাতœকভাবে তিগ্রস্থ হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সায়েদ মনজুর আলম বলেন, উপজেলা প্রকৌশলীকে রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়াও উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা থেকে থানা যারা রাস্তা কেটে দিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশকে বলা হয়েছে।

শেয়ার