সর্বদলীয় সরকারের কাজ শুরু হয়েছে: তোফায়েল

Tofael
সমাজের কথা ডেস্ক ॥ শেখ হাসিনার প্রস্তাব অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকার গঠনের কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে বলে জানিয়ে তাতে বিএনপিকে যোগ দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমেদ।
নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনরত বিএনপির সঙ্গে সংলাপের মধ্যে বুধবার দলের এক সভায় এই আহ্বান জানান তিনি।
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল বলেন, “শেখ হাসিনা নির্বাচনকালীন সময়ে যে সর্বদলীয় সরকার গঠনের কথা বলেছিলেন, সে সরকার গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে।”
“তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি মেনে নিয়ে আলোচনা করার আর কোনো সুযোগ নেই,” বলে বিরোধী দলকে সর্বদলীয় সরকারে যোগ দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।
সংবিধান মেনে নির্বাচনের পক্ষপাতি আওয়ামী লীগ সভানেত্রী নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকার গঠনের প্রস্তাব দেয়ার পর ইতোমধ্যে জাতীয় পার্টি, সিপিবি ও বাসদ এবং ১৪ দলের শরিকদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।
প্রধান বিরোধী দল বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে টেলিফোন করে সংলাপের আমন্ত্রণও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে বিএনপি নির্দলীয় সরকারের দাবি নীতিগতভাবে মেনে নিতে সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে।
দুই দলের পাল্টাপাল্টি অবস্থানে দশম সংসদ নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক সঙ্কটের আশঙ্কার মধ্যে খালেদাকে টেলিফোন করেন হাসিনা।
হাসিনা হরতাল প্রত্যাহার করে আলোচনার আমন্ত্রণ জানালেও কর্মসূচি শেষে তা রক্ষা করতে রাজি থাকার কথা জানান খালেদা। এরপর দ্বিতীয় দফায় সংলাপের জন্য দুই দল পরস্পরকে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে।
তোফায়েল বলেন, “এখন সংলাপ চাইলে এর জন্য উদ্যোগ আপনাদের (বিএনপি) নিতে হবে। আলোচনা হতে হবে নিঃশর্ত। নিঃশর্ত আলোচনা করতে চাইলে আমরা রাজি আছি।”
‘২৭ অক্টোবরের পর সরকারের বৈধতা থাকবে না’ বলে খালেদা জিয়ার বক্তব্যের জবাবে তাকে সংবিধান পড়ার অনুরোধ জানান আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই সংসদ সদস্য।
“আমার মনে হয় আপনি না পড়ে, না বুঝে, এই কথা বলেছেন।”

শেয়ার