যশোরে বোমা হামলায় আ’লীগ নেতা জখম

boma hamla
নিজস্ব প্রতবিদেক॥ যশোরে আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামের (৫২) ওপর ফের গুলিবর্ষণ ও বোমা হামলা চালানো হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে যশোরের ঢাকা রোড তালতলা এলাকায় তার ওপর এ হামলা চালানো হয়।
মুমূর্ষু অবস্থায় নজরুল ইসলামকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি যশোর পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও যশোর টায়ার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি।
এর একমাস আগে গত ২৯ সেপ্টেম্বরও তাকে গুলি করে দুর্বৃত্তরা। শীর্ষ সন্ত্রাসী ফিঙে লিটন বাহিনীর ক্যাডাররা এ হামলা চালিয়েছে বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী যশোর টায়ার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম মিন্টু জানান, আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকা রোড তালতলা এলাকায় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অবস্থান করছিলেন।
এ সময় ৪/৫ জন সন্ত্রাসী তার প্রতিষ্ঠানে ঢুকে তাকে লক্ষ্য করে ৩/৪ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। এর কয়েকটি তার শরীরে বিদ্ধ হয়। গুলি করে সন্ত্রাসীরা ৩/৪ টি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে চলে যায়।
পরে স্থানীয় লোকজন তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তাকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার জানিয়েছে, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা তরিকুল ইসলাম আশ্রিত শীর্ষ সন্ত্রাসী ভারতে পলাতক ফিঙে লিটন বাহিনীর সদস্যরা এ হামলা চালিয়েছে।
এ হামলার খবর পেয়ে রাতেই আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ শহরে তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিল বের করে।
যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক জানান, গুলিবর্ষণের পর নজরুল ইসলামের ওপর বোমা হামলাও করা হয়। বোমা তার পেটের ওপরে বিস্ফোরিত হওয়ায় সেখানে মারাত্মক জখম হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত ২৯ সেপ্টেম্বরও আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম (৫২) ও পরিবহণ শ্রমিক রিপনকে গুলি করে একই বাহিনীর সদস্যরা। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সুস্থ হয়ে নজরুল ইসলাম ফিঙে লিটন বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করে তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিস্তারিত তুলে ধরেন। ওই হামলার একমাস পর তিনি ফের হামলার শিকার হলেন।

শেয়ার