গণতন্ত্ররে ধারাবাহকিতা রক্ষা করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

PM
বাংলানিউজ ॥
উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে। গণতন্ত্রের মধ্যে অন্য কিছু ঢুকে গেলে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ব্যাহত হবে।
মঙ্গলবার রাতে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি(সিপিবি) এবং বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
রাত আটটায় শুরু হওয়া এ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা চাই গণতন্ত্রকে আরও সুরক্ষিত ও শক্তিশালী করতে। সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে আমরা গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছি।
তিনি বলেন, আগামীতে গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে আমরা সবার সাথে আলোচনা করছি। এর মাধ্যমে আমরা আগামীতে সুষ্ঠু নির্বাচন পাবো।
এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে অংশ নিতে সন্ধ্যা সাতটায় গণভবনে উপস্থিত হন সিপিবি ও বাসদের ১৫ নেতা।
সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেন দলের উপদেষ্টা মঞ্জুরুল আহসান খান, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য হায়দার আকবর রনো, মো. শাহ আলম, শামসুজ্জামান সেলিম, লক্ষ্মী চক্রবর্তী, রুহিন হোসেন প্রিন্স, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন।
অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানের নেতৃত্বে বাসদের প্রতিনিধিদলে ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, জাহেদুল হক মিলু, রাজেকুজ্জামান রতন ও রওশন আরা রুশো।
বৈঠকে আওয়ামী লীগের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত, সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, ওবায়দুল কাদের, মোহাম্মদ নাসিম ও নূহ-উল আলম লেনিন।
এ ছাড়া আরও উপস্থিত থাকেন আব্দুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, হাসান মাহমুদ, মৃণাল কান্তি দাশ, অসীম কুমার উকিল, এনামুল হক শামীম, বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী আবদুস সোবহান গোলাপ ও প্রধানমন্ত্রীর এপিএস সাইফুজ্জামান শেখর।

শেয়ার