রফিকুলকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

Rafiqul
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের সাংবাদিকদের প্রতিটি নিঃশ্বাসের সাথে যার সর্বক্ষণিক স্পর্শ, রাজনীতিক, ব্যবসায়ী, সংস্কৃতিকর্মী, সরকারি-বেসরকারি সবপর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাথে যে রেখেছে নিবিড় যোগাযোগ, যার হাসিমুখ দেখে অভ্যস্ত এ অঞ্চলের সবাইÑ সেই কর্মঠ তরুণ প্রেসক্লাব যশোরের রফিকুল এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। হেপাটাইটিস-বি পজিটিভ হওয়ায় তার জন্ডিসের মাত্রা ১৬ পয়েন্ট ছাড়িয়েছে। একইসাথে, তার দুটি কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত এবং লিভারও সংক্রমিত।
মাত্র ১৮ বছর বয়সে রফিকুল ইসলাম প্রেসক্লাব যশোরের সাথে কর্মসূত্রে জড়িত হন। শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা কোন কিছুই কাবু করতে পারেনি তাকে। এই সংগঠনের সাথে তার নাড়ির সম্পর্ক। প্রেসক্লাবের কাজকে কখনোই তিনি চাকরি হিসেবে দেখেননি। যেন আত্মার আত্মীয় হয়ে ওঠে সাংবাদিকদের এই সংগঠনটি। তাইতো দিন-রাত বলে কিছু ছিল না। সেই টিনের ঘর থেকে আজকের এ অবস্থায় নিজ হাতে অতি যতনে সবকিছুর তদারক করেছেন তিনি।
রফিকুল ইসলামকে গত ২১ অক্টোবর তাকে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার্থে ঢাকায় প্রেরণের পরামর্শ দেন। ২৪ অক্টোবর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখান থেকে পরদিন তাকে নেয়া হয় ধানমণ্ডি ইবনে সিনা হাসপাতালে। সেখানকার চিকিৎসকরা জানান, রফিকুলের দুটি কিডনি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত এবং লিভার সংক্রমিত হয়েছে।
বর্তমানে রফিকুলকে ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিজ্ঞ চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে। তার চিকিৎসার্থে প্রতিদিন ৩০ সহস্রাধিক টাকা ব্যয় হচ্ছে। এত বড় অঙ্কের ব্যয়ভার বহন রফিকুলের দরিদ্র বাবা-মায়ের পক্ষে সম্ভব নয়।
রফিকুলকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে আনতে অনেক মানুষের সহায়তা প্রয়োজন। এ লক্ষে সমাজের বিবেকবান মানুষদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

অর্থসাহায্য পাঠানোর ঠিকানা : হিসাব নম্বর : এসবি-১২৩২১০৭০০১৫৩৬০, প্রাইম ব্যাংক লি. যশোর শাখা
সকল প্রকার যোগাযোগ : সম্পাদক, প্রেসক্লাব যশোর, ফোন : ০১৭১১ ২৯৯২৯০, ০১৯১৯ ২৯৯২৯০

শেয়ার