উদীচীর ৪৫-তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ সাংস্কৃতিক বিজয় না আনতে পারলে জাতি সত্ত্বার বিকাশ হবে না। সাংস্কৃতিক বিজয়ের জন্য ৪৫ বছর ধরে উদীচী কাজ করে যাচ্ছে। বাঙ্গালি জাতির চেতনা সত্ত্বার জাগ্রত না হওয়া পর্যন্ত উদীচী তাদের লড়াই চালিয়ে যাবে। সংস্কৃতির ধারাকে অগ্রসর করার লক্ষে উদীচীর জন্ম। সাংস্কৃতিক এই সংগঠনটি কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিতে চায় না। উদীচী তার জন্ম লগ্ন থেকে সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে কাজ করে যাচ্ছে। এটা বুজতে পেরে সাম্প্রদায়িক শক্তির লোক উদীচীর উপর আঘাত হানে। শুক্রবার বাংলাদেশ উদীচী শিল্পগোষ্ঠীর ৪৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যশোর জেলা শাখা আয়োজিত মুক্ত আলোচনায় বক্তরা এসব কথা বলেন। উদীচী প্রাঙ্গনে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি সমেশ মুর্খাজি। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা অধ্যাপক সন্তোষ হালদার, অ্যাড. আবুল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. আতিকুর রহমান খান ও উদীচীর সাধারণ সম্পাদক ডিএম শাহিদুজ্জামান। এসময় উদীচীর অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উদীচী এবার ৩ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। ২৯ অক্টোবার সকাল সাড়ে ৭টায় উদীচী প্রাঙ্গনে জমায়েত ও শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন। একই দিন সন্ধ্যা ৬টা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান। এছাড়া ৩০ অক্টোবার বিকাল ৪ টায় উদীচী প্রাঙ্গন থেকে আনন্দ শোভাযাত্রার মাধ্যমে শেষ হবে এই অনুষ্ঠান মালা। ‘লড়াই চলছে থেমে নেই, নিশ্চিত জেনো বিজয় আসবেই’ এই শ্লোগানে এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হচ্ছে।

শেয়ার