মহেশপুরে আসামি ধরতে গিয়ে চৌগাছার দারোগাসহ ২ পুলিশ সদস্য আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালীগঞ্জ॥ যশোরের চৌগাছা থানা পুলিশ ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলার ভিতর কেন্দ্রীয় জামায়াত ইসলামীর সুরা সদস্য অধ্যক্ষ মতিয়ার রহমানকে ধরতে এসে গ্রাম বাসির হাতে গুরুতরভাবে আহত হয়েছে এ.এস.আইসহ ২ পুলিশ সদস্য। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলার আজমপুর ইউনিয়নের মালাধরপুর গ্রামে।
গ্রামবাসি জানান, মঙ্গলবার ভোররাতে চৌগাছা থানার এ.এস.আই খালেদসহ ২ পুলিশ সদস্য চৌগাছা উপজেলার ফাঁসতলা এলাকা থেকে কেন্দ্রীয় জামায়াত ইসলামীর সুরা সদস্য অধ্যক্ষ মতিয়ার রহমানকে আটকের জন্য তার মোটরসাইকেলের পিছু নেন। পরে অধ্যক্ষ মতিয়ার রহমান মহেশপুর উপজেলার মালাধরপুর গ্রামের ভিতর ঢুকে পড়লে চৌগাছা থানার এ.এস.আই খালেদসহ ২ পুলিশ তাকে আটকের চেষ্টা করেন। এসময় মালাধরপুর গ্রামের জামায়াত কর্মীরা এ.এস.আই খালেদসহ ২ পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় পুলিশ সদস্যদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
চৌগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মতিয়ার রহমান জানান, গ্রামবাসির হাতে এ.এস.আই খালেদসহ ২ পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই।
চৌগাছা থানার এ.এস.আই খালেদসহ ২ পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মহেশপুর থানা অফিসার ইনচার্জ আকরাম হোসেন জানান, চৌগাছা থানার পুলিশ সদস্যদের কাছে খবর ছিলো সীমান্ত এলাকা থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য আসছে। ভোররাতে মটর সাইকেলটি তাদের সন্দেহ হলে তারা মটর সাইকেলটির পিছু নেয়।

শেয়ার