মংলায় টাকার বিনিময়ে কমিটি করার অভিযোগ ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতার বিরুদ্ধে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

লোকমান হোসেন, মংলা॥ ছাত্রদলে কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল হালিম খোকনকে অবাঞ্চিক ঘোষণা করেছে মংলা ছাত্রদলের নেতারা। মঙ্গলবার সকালে তার বিরুদ্ধে ঝাড়– ও জুতা মিছিল করার পর এক পথ সভায় এ ঘোষণা দেন। মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে মংলায় ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণা করায় অভিযোগ তোলেন ছাত্রনেতারা।
মংলা পৌর ছাত্রনেতা মাসুম বিল্লাহ জানান, মঙ্গলবার সকালে একটি আঞ্চলিক পত্রিকার মাধ্যমে মংলা ছাত্রদলের নতুন কমিটির নাম জানার পর পরীক্ষিত ছাত্রনেতারা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। সকাল ১০টার দিকে থানা ও পৌর ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ একত্র হয়ে ঝাড়– ও জুতা মিছিল নিয়ে রাস্তায় বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিল থেকেই উত্তেজিত ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ আব্দুল হালিম খোকনের পোস্টার ব্যানার ছিড়ে ফেলে। পরে শহরের হোটেল প্যারাডাইস মোড়ে এক পথ সভায় খোকনকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।
পদ বঞ্চিত ছাত্রনেতা আবুল কাশেম বলেন, ‘আমি বর্তমান মংলা থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক অথচ নতুন কমিটিতে আমার কোন স্থান হয়নি। রাজনীতি করার কারণে আজ আমি গৃহছাড়া। আমার বিরদ্ধে থানায় ডজন খানিক রাজনৈতিক মামলা রয়েছে। অথচ আমাকে কোন পদে রাখা হয়নি। স্বার্থ হাসিলের জন্যই এ কমিটি বলে তিনি মন্তব্য করেন।’
অপর ছাত্র নেতা সাইফুল ইসলাম অভিযোগ করেন, ‘মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে গ্রুপিং জিয়িয়ে রাখতে এ পকেট কমিটি করা হয়েছে। এতে মংলা ছাত্রদল ঝিমিয়ে পড়বে বলে তিনি মন্তব্য করেছেন।’
জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ও মংলা পৌর ছাত্রদলের সভাপতি মাহমুদ রিয়াদ বলেন, ‘অবৈধভাবে স্বৈরাচারীপন্থায় এ কমিটি করা হয়েছে। এ কমিটি করার তার কোন অধিকার নেই।’
ছাত্রদলের নতুন কমিটিকে খোকন কমিটি আখ্যা দিয়ে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সূজা উদ্দিন মোল্যা সুজন বলেন, ‘এ কমিটির জেলা বা কেন্দ্রের কোন অনুমোদন নেই। নতুন কমিটি শিগগির প্রকাশ করা হবে।’ তিনি আরও বলেন, আব্দুল আলিম খোকনকে কেন্দ্র থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ করবেন তারা।
এদিকে, পদপ্রাপ্তিরা আনন্দ মিছিল বের করবে এবং পদ বঞ্চিতরা প্রতিহত করবে বলে ঘোষণা দেওয়ায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

শেয়ার