অনলাইন বজ্ঞিাপনে সুদনি, বন্ধুত্বে গুগল-ফসেবুক

google
সমাজের কথা ডেস্ক॥
অনলাইন বিজ্ঞাপনের সুদিনের কথা গুগল আর ফেসবুক এ শীর্ষ প্রতিষ্ঠানের ভালোই জানা। ভবিষ্যৎ দুনিয়ার অনলাইন বিজ্ঞাপনের নিয়ন্ত্রণ সত্যিকার অর্থেই থাকবে গুগল-ফেসবুকের কবজায়।

সম্প্রতি গুগল ঘোষণা দিয়েছে তাদের নিজস্ব বিজ্ঞাপনী সেবা ডাবলক্লিকে ফেসবুকের বিজ্ঞাপন প্রদর্শিত হবে। এতে বিজ্ঞাপন জগতে নতুন মাত্রা সূচিত হবে। সংবাদমাধ্যম সূত্র এ তথ্য দিয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিজ্ঞাপনের প্রচারে এখন চলছে বিটুসি (বিজনেস টু কনজ্যুমার) কৌশলে। এতে গুগল প্লাস (সামাজিক গণমাধ্যম) নতুন ধারণা নিয়ে এলেও ফেসবুক এ পথে আগেই মাঠে নেমেছে। আর এ কারণে প্রতিদ্বন্দ্বী না হয়ে মৈত্রী শর্তে জুটিবদ্ধ হচ্ছে গুগল-ফেসবুক।

অনলাইন বিজ্ঞাপনের সুবাদে আন্তর্জাতিক শেয়ারবাজারে গুগল ব্র্যান্ডের শেয়ারমূল্য বাড়ছে তড়িঘড়ি করে। এদিকে থেমে নেই ফেসবুক বিজ্ঞাপনের এগিয়ে চলাও। আসছে নিত্যনতুন বিজ্ঞাপন উপস্থাপন আর সাজসজ্জা।

এরই মধ্যে ফেসবুকের শেয়ারমূল্যও গড়েছে স্বরণকালের নতুন রেকর্ড। গুগল ডাবল কিক্লের জ্যেষ্ঠ পণ্য ব্যবস্থাপক পায়াম শোধজাই বলেন, গুগল সফলতার মূল মন্ত্রই হচ্ছে অংশীদারিত্ব। এ কৌশলেই এগিয়েছে গুগল। আর ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে।

আসছে সময়ে গ্রাহকদের অনলাইনেই পণ্য নির্বাচনে গুগল আর ফেসবুক যৌথ উদ্যোগে কাজ করবে। এ নতুন উপস্থাপন পদ্ধতি ভোক্তাদের বিরক্তির কারণ না হয়ে বরং সহায়কের দায়িত্ব পালন করবে। এতে সমৃদ্ধ হবে অনলাইন বিজ্ঞাপনের বাজার। এতে ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়েই সমলাভ গুণতে পারবেন। এমনটাই জানাচ্ছেন বাজার বিশ্লেষকেরা।

এ প্রসঙ্গে গুগল ডাবলক্লিক বিড ম্যাজোর জানান, এখন চলছে অ্যাড স্পেস কেনার দারুণ প্রতিযোগিতা। ফলে বিজ্ঞাপনের সুফলটা ভাগাভাগি করে নেওয়ার অবাধ সুযোগ থাকছে সব পক্ষের মধ্যেই। সময় আর বিজ্ঞাপন প্রমোশনই এখানে মূল লক্ষ্য।

গুগল যোগাযোগে মাধ্যমে ফেসবুক অ্যাড স্পেস বিক্রি হলেও আপাতত ফেসবুকে বিক্রি হচ্ছে না গুগল অ্যাড। অচিরেই ডাবলকিক্ল পদ্ধতিতে গ্রাহকেরা সরাসরি পণ্য কেনার সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। এ জন্য কারিগরি পদ্ধতিকে আরও সহজবোধ্য করতে কাজ করে যাচ্ছে গুগল-ফেসবুক।

সময়ের স্মার্টফোনের কল্যাণে অনলাইন বিজ্ঞাপন দুনিয়ার আমূল পরিবর্তন অনিবার্য। হাতের ছোট্ট ফোনেই চটজলদি কিনে নেওয়া যাবে যেকোনো পণ্য, যেকোনো মুহূর্তে। এসব কিছুই ভবিষ্যৎ অনলাইন দুনিয়ার আধিপত্য আর সুদিনের কথাই ইঙ্গিত করছে। এ নিয়ে বিশ্লেষকদের মধ্যেও কোনো সুস্পষ্ট দ্বিমত নেই।

শেয়ার