“ড্রোন হামলা পাকিস্তানের সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন”

Nawassarif
সমাজের কথা ডেস্ক॥ পাকিস্তানি ভূখণ্ডে চালানো ড্রোন হামলা দেশটির সার্বভৌমত্বের ভয়াবহ লঙ্ঘন বলে মনে করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। আসছে যুক্তরাষ্ট্র সফরে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
‘দ্য ডন’ পত্রিকা রোববার জানায়, গত সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের ফাঁকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে সাক্ষাতের সময়ও নওয়াজ ড্রোনের বিষয়টি তুলেছিলেন। ওই সময়ও ড্রোন হামলা বন্ধে ওয়াশিংটনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন তিনি।
শনিবার যুক্তরাষ্ট্র রওয়ানা হওয়ার সময় লাহোর বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন শরীফ। ওবামার সঙ্গে আলোচনায় দক্ষিণ এশিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলবেন বলেও জানিয়েছেন নওয়াজ, যার মধ্যে আফগানিস্তানের বিষয়ও থাকবে।
২০ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র সফরে থাকবেন নওয়াজ। বুধবার হোয়াইট হাউজে বারাক ওবামার সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।
এর আগে রোববার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি ছাড়াও অন্যান্য কর্মকর্তার সঙ্গে নওয়াজ বৈঠক করবেন।
সফরকালে মার্কিন সরকারকে তিনি পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেবেন যে, ড্রোন হামলার অর্থ হচ্ছে পাকিস্তানের সার্বভৌমত্বের ওপর হামলা।
অপর একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় তথ্যমন্ত্রী পারভেজ রশিদ জানিয়েছেন, নওয়াজ ড্রোন হামলার বিষয়ে পাকিস্তানের উদ্বেগের বিষয়টি ওবামার কাছে তুলে ধরবেন।
এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেছেন, “আমাদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বোর্ডে ড্রোন হামলার বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে।”
“ঘরোয়া সন্ত্রাস দমনের জন্য পাকিস্তান সরকারের নিজস্ব পরিকল্পনাটা কি আমরা সেটা জানতে চাই। এছাড়া পাকিস্তানি তালেবানদের সঙ্গে ভবিষ্যৎ সম্পর্কের বিষয়ে কোন বিষয়টি তাদের আগ্রহী করে তুলেছে এবং কার্যকর শান্তি আলোচনার জন্য তাদের অবস্থান কি সেটাও আমরা জানতে চাই,” বলেন তিনি।

শেয়ার