শাটডাউন অবসানের বিলে সই ওবামার

Obama
সমাজের কথা ডেস্ক॥ যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি সেবাখাতের কার্যকম বন্ধ থাকার অচলাবস্থা কাটিয়ে উঠতে এবং ঋণসীমা বাড়ানো সংক্রান্ত বলে সই করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। বুধবার রাতে বিলটি প্রতিনিধি পরিষদে পাসের পর বৃহস্পতিবার সকালের দিকে এতে সই করেন ওবামা।
বিলে ওবামার সইয়ের মাধ্যমে ১৬ দিন সেবা খাতের কার্যকম বন্ধ থাকার অবসান ঘটলো। হোয়াইট হাউজ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে, বিশ্ব বাজারকে নাড়া দেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাশিত ঋণ সংকট নিয়ে অচলাবস্থারও অবসান হয়েছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত ১১টা ৫৯ মিনিটের মধ্যে সরকারের ঋণসীমা নিয়ে সিদ্ধান্তে আসতে হতো যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে।
কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে বিলটির পক্ষে-বিপক্ষে ৮১-৮১ ভোট পড়ার পর সেটি রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে পাঠানো হয়। বুধবার রাতে বিলটি ২৮৫-১৪৪ ভোটে পাস হয়। বিলটি পাস হওয়ায় ওবামা স্বাগত জানিয়েছেন।
ওবামা বলেছেন, ‘খুব শিগগিরই আমরা সরকারের কার্যক্রম চালু করছি এবং আমাদের ব্যবসায়ী ও আমেরিকান জনগণের অনিশ্চয়তা কাটিয়ে উঠতে শুরু করতে পারব।’
বিলটি সম্পকে রিপাবলিকান হ্যারল্ড রজার্স বলেছেন, দীর্ঘ দুই সপ্তাহ পর সরকারি শাটডাউনের অবসানের সময় হয়েছে। বিপর্যয়ের আশঙ্কাকে দূরে সরিয়ে দেওয়ার এটাই সময়। স্থিতিশীলতা আনার এটাই সময়।
বিলটি আইনে পরিণত হওয়ায় যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ঋণসীমা ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে ১৫ জানুয়ারির পর্যন্ত তহবিল পাবে সরকার। এবং বেতন-ভাতা ছাড়াই বাধ্যতামূলকভাবে ছুটিতে যাওয়া সরকারি সেবা সংস্থাগুলোর ৮ লাখ মানুষ আবার কাজে যোগ দেবেন।
এ চুক্তির ফলে দেশটির বাজেট সমস্যার একটি অস্থায়ী সমাধান হলো। বাজেট সমস্যার এখবও কোনো স্থায়ী সমাধান হয়নি। এর ফলে আগামী বছর আবারও শাটডাউনের মুখোমুখি হতে পারে দেশটি।
বাজেট নিয়ে ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেট ও বিরোধী রিপাবলিকানরা সমঝোতায় আসতে না পারায় অক্টোবরের ১ তারিখ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেবা খাতগুলোর কার্যক্রম আংশিক বন্ধ করে দেওয়া হয়। শেষ মুহূর্তে এসে ওবামার স্বাস্থ্যসেবাকে সামনে এনে বাজেট বরাদ্দ আটকে দেয় রিপাবলিকানরা।
নতুন বাজেট নিয়ে ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেট ও বিরোধী রিপাবলিকান একমত হতে না পারায় যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সেবাখাতগুলোর অধিকাংশের কার্যক্রম বন্ধ হয় যায়। অর্থ বরাদ্দ না পাওয়ায় দেশটির আট লাখ সরকারি চাকরিজীবীর বেতন ছাড়াই বাধ্যতামূলত ছুটিতে যেতে হয়। মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (নাসা), জাতীয় পার্ক, পরিবেশ সংরক্ষণবিষয়ক সংস্থাসহ বেশ কিছু সেবা সংস্থার অধিকাংশ কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে।

তবে সামরিক বাহিনী, পুলিশ প্রশাসন, অগ্নিনির্বাপণ কর্তৃপক্ষ ও নিরাপত্তাবিষয়ক সংস্থাগুলো কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন যেন না আটকায়-সেজন্য অন্য একটি আইন কার্যকর ছিল।
যুক্তরাষ্ট্রের নতুন অর্থ বছর ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে। গত অর্থবছরের শেষদিন ৩০ সেপ্টেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত কংগ্রেসে নতুন অর্থবছরের জন্য বরাদ্দ অনুমোদনের শেষ সময় ছিল।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের নিয়ন্ত্রণ রিপাবলিকান ও উচ্চকক্ষ সিনেটের নিয়ন্ত্রণ প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ডেমোক্রেটিক পার্টির হাতে। ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকানদের মধ্যে চরম বৈরিতার কারণেই সেবা খাতগুলোতে অর্থ বরাদ্দ নিয়ে ১৭ বছর পর যুক্তরাষ্ট্রে আবার এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়।

এর আগে ১৯৯৫ ও ১৯৯৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কিছু সেবা খাতের কার্যক্রম স্থগিত করে দেওয়া হয়েছিল। ১৯৯৫ সালের ১৪ নভেম্বর থেকে ১৯ নভেম্বর ও ১৯৯৫ সালের ১৬ ডিসেম্বর থেকে ১৯৯৬ সালের ৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের অজরুরি সরকারি কর্মকর্তাদের সাময়িক ছুটি প্রদান এবং অজরুরি সেবাগুলো স্থগিত রাখা হয়েছিল।

শেয়ার