১১৭ দিন পায়ে হেঁটে হজ করতে সৌদিতে!

soudi
বাংলানিউজ
গল্প নয় সত্যি। ১১৭ দিন পায়ে হেঁটে ৬ হাজার ৩৮৭ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে পাকিস্তানের করাচি থেকে সৌদি আরবের মক্কায় পৌঁছালেন খারলজাদা কাসরাত।

‘ওয়াল্ক ফর গ্লোবাল, করাচী টু মক্কা’ আরবিতে লেখা সাদা একটি পতাকা সঙ্গে নিয়ে তিনি হেঁটে আসেন।

কিভাবে এলেন প্রশ্ন করা হলে কাসরাত বলেন, ৭ জুন থেকে হাঁটা শুরু করে ১ অক্টোবর ১১৭ দিনে ৬ হাজার ৩৮৭ কিলোমিটার হেঁটে মক্কায় আসি।

হাঁটার কৌশল জানতে চাইলে বলেন, আস্তে আস্তে হেঁটেছি যাতে পায়ে ফুসকা না পরে এবং অসুস্থ না হই।

প্রথমে পাকিস্তানের করাচী থেকে বেলুচিস্তান, ইরান, ইরাক, জর্ডান পাড়ি দিয়ে সৌদি আরবের মদিনায় আসতে তার সময় লাগে ১০৭ দিন। মদিনায় মসজিদে নববীতে ৪০ ওয়াক্ত নামাজ আদায় শেষে পায়ে হেঁটেই মক্কার উদ্দেশে রওনা হন তিনি। মদিনা থেকে মক্কায় পৌঁছাতে তার সময় লাগে মাত্র দশদিন।

সৌদিতে পৌঁছালে মক্কার গভর্নর প্রিন্স ফয়সালের পক্ষ থেকে তাকে স্বাগত জানান মক্কা অঞ্চলের তথ্য ও সাংস্কৃতিক বিভাগের মহাপরিচালক সাউদ আল সাকি। এসময় পাকিস্তানের কনসল জেনারেল আফতাব আহমেদ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এর আগে তিনি পায়ে হেঁটে পাকিস্তানের খাইবার ২ হাজার ২৫০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ৭২ দিনে করাচী যান। ২০০৭ সালে ৮৫ দিনে ১ হাজার ১৯৯ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে গিনিস বুকে নাম উঠিয়েছেন পাকিস্তানি এই নাগরিক।

শেয়ার