১৬ই এপ্রিল ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
স্বাধীনতার সূতিকাগার ভাষা আন্দোলন
65 বার পঠিত

মহান ভাষা আন্দোলনের ৭২ বছর পূর্তি আজ। ভাষা আন্দোলন বাঙালি জাতির স্বাধীনতা ও মুক্তি আন্দোলনের অনুষঙ্গ। ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনের মাধ্যমে বপিত হয়েছিল স্বাধীনতার বীজ। মাতৃভাষায় কথা বলার অধিকার আদায়ে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্র“য়ারি রক্ত দিয়েছিলেন সালাম, বরকত, রফিক, শফিকসহ বাংলা মায়ের সেরা সন্তানরা।

বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে স্বীকৃতিদানে বাধ্য হয়েছিল পাকিস্তানি স্বৈরশাসকরা। ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বিকশিত হয় বাঙালির স্বাধিকার চেতনা; যার চূড়ান্ত রূপ সত্তরের নির্বাচনে অবয়ব পায়। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে সেই অবিনশ্বর চেতনা বাঙালির জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ইপ্সিত লক্ষ্য অর্জন করেছে।

ভাষাশহীদদের এ দিনটি এখন জাতিসংঘের উদ্যোগে সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে উদযাপিত হয়। দুনিয়ার দেশে দেশে মাতৃভাষায় কথা বলার অধিকার সমুন্নত রাখার শপথ নেওয়া হয় এ দিন। মাতৃভাষায় কথা বলার অধিকার যে একটি মানবাধিকার তা—ও স্বীকৃত এখন আন্তর্জাতিকভাবে।

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসনের অবসানে ১৯৪৭ সালের মধ্য আগস্টে পাকিস্তান প্রতিষ্ঠায় বাঙালি মুসলমানরাই মুখ্য ভূমিকা পালন করে। কিন্তু অচিরেই ভারত থেকে উদ্বাস্তু হয়ে আসা উর্দুভাষী রাজনীতিক, আমলা ও সেনাপতিদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়ে পাকিস্তান। দেশের শতকরা ৫ ভাগ মানুষ উর্দুভাষী না হলেও তারা সে ভাষাকে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা ঘোষণার ধৃষ্টতা দেখায়।

সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ভাষা বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষা হিসেবে মেনে নিতেও অস্বীকৃতি জানায় পাকিস্তানের ক্ষমতা কুক্ষিগতকারী শাসকরা। ছাত্রসমাজ এ অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্র“য়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে পাকিস্তানি পুলিশ নির্বিচারে গুলি চালায়। একুশের শহীদদের রক্তদান বাঙালি জাতিকে প্রতিরোধ গড়ে তোলার সাহস জুগিয়েছে।

এ সাহসই ছিল ১৯৭১ পর্যন্ত প্রতিটি আন্দোলন—সংগ্রামের অনুপ্রেরণা। মহান মুক্তিযুদ্ধেও তা পথপ্রদর্শক হিসেবে ভূমিকা রেখেছে। বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে এ প্রেরণাকে বুকে লালন করতে হবে। সর্বস্তরে বাংলা প্রতিষ্ঠার দায় পূরণেও উদ্যোগী হতে হবে। ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের হার না মানা চেতনা সঙ্গী করে দেশ গঠনে ব্রতী হলে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য অর্জন সম্ভব হবে। অমর একুশের এই দিনে ভাষাশহীদদের প্রতি আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধা। শহীদস্মৃতি অমর হোক।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০১৭১১-১৮২০২১, ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
পুরাতন খবর
FriSatSunMonTueWedThu
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930 
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram