২৭শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
যশোরের ৬ আসনে ৪৬ মনোনয়নপত্র জমা

নিজস্ব প্রতিবেদক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যশোরের ৬ আসনে ৪৬ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। জমাদানের শেষদিন বৃহস্পতিবারে সকাল থেকে যশোর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দেন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগ, জাতীয়পার্টি ও জাকেরপার্টি ৬টি আসনেই প্রার্থী দিয়েছেন। এছাড়াও তৃণমূল বিএনপি ৩, বিএনএফ ৩, ইসলামী ঐক্যজোট ২, বাংলাদেশ কংগ্রেস ১, বিকল্পধারা ১, খেলাফত আন্দোলন ১, এনপিপি ১ ও স্বতন্ত্র ১৬জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

যশোর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য মিলেছে। প্রাপ্ত তথ্য মতে, যশোর—১(শার্শা) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী বর্তমান এমপি শেখ আফিল উদ্দিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আশরাফুল আলম, মো. সোহরাব হোসেন ও মো. নাজমুল হাসান। তাছাড়া জাকের পার্টির মো.সবুর খান ও জাতীয় পার্টির মো. আক্তারুজ্জামান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরমধ্যে মো. আশরাফুল আলম বেনোপোলের সাবেক মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মো. নাজমুল হাসান কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য।

যশোর—২(চৌগাছা—ঝিকরগাছা) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৭জন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. তৌহিদুজ্জামান, স্বতন্ত্র মো. মনিরুল ইসলাম, এস, এম হাবিবুর রহমান। জমা দিয়েছেন। জাকের পার্টির মো.সাফারুজ্জামান, জাতীয় পার্টির মো. ফিরোজ শাহ, বিএনএফের মো. শামছুল হক ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আব্দুল আওয়াল মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। স্বতন্ত্র জমাদানকারীদের মধ্যে মো.মনিরুল ইসলাম সাবেক এমপি ও আওয়ামী লীগের জেলা যুগ্ম সম্পাদক এবং এস, এম হাবিবুর রহমান চৌগাছার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।

যশোর—৩(সদর) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ১০জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ, স্বতন্ত্র মো. শহিদুল ইসলাম মিলন ও মোহিত কুমার নাথ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এছাড়াও বিকল্পধারার মো. হাসান কাজল, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. তৌহিদুজ্জান, জাকের পার্টির মো.মহিবুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির মো. মাহবুব আলম, বিএনএফের শেখ নুরুজ্জামান, তৃণমূল বিএনপির মো. কামরুজ্জামান, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির অ্যাড. সুমন কুমার রায় ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আব্দুল আওয়াল মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মধ্যে মো. শহিদুল ইসলাম মিলন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মোহিত কুমার নাথ আওয়ামী লীগের সদর উপজেলা সভাপতি।

যশোর—৪ (বাঘারপাড়া ও অভয়নগর) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮জন। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অভয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল হক বাবুল, স্বতন্ত্র রনজিৎ কুমার রায়, সন্তোষ কুমার অধিকারী, তৃণমূল বিএনপির লে. কর্নেল(অব.) এম শাব্বির আহমেদ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের(বিএনএফ) সুকৃতি কুমার মন্ডল, ইসলামি ঐক্যজোটের মোহাম্মদ ইউনুস আলী, জাকের পার্টির লিটন মোল¬া ও জাতীয় পার্টির জহুরুল হক। এদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী রনজিৎ কুমার রায় বর্তমান সংসদ সদস্য, সন্তোষ কুমার অধিকারী সাবেক সচিব।

যশোর—৫ (মনিরামপুর) আসন থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯জন। আওয়ামী লীগ মনোনীত বর্তমান সংসদ সদস্য প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচায্যর্, স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াকুব আলী, কামরুল হাসান বারী, হুমায়ুন সুলতান ও আমজাদ হোসেন লাভলু, এবং তৃণমূল বিএনপির আবু নসর মোহাম্মদ মোস্তফা, ইসলামি ঐক্যজোটের হাফেজ মাওলানা নুরুল¬াহ আব্বাসী, জাকের পার্টির মো. হাবিবুর রহমান এবং জাতীয় পার্টির এমএ হালিম। এরমধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াকুব আলী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য ও জেলা কৃষকলীগের সহ—সভাপতি, কামরুল হাসান বারী আওয়ামী লীগ নেতা, হুমায়ুন সুলতান সাবেক এমপি খান টিপুসুলতানের ছেলে ও আওয়ামী লীগ নেতা ও আমজাদ হোসেন লাভলু উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা।

যশোর—৬ (কেশবপুর) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬জন। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগ মনোনীত বর্তমান সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদার, স্বতন্ত্র প্রার্থী হোসাইন মোহাম্মদ ইসলাম, আজিজুল ইসলাম ও এইচ,এম আমির হোসেন, জাতীয় পার্টির জিএম হাসান, জাকের পার্টির সাইদুজ্জামান মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। তবে উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা এইচ,এম আমির হোসেন এবং জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুল ইসলাম আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন।

যশোর—৩ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ ৩য় বারের মত আওয়ামী লীগের মনোনয়নপাওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তার আশা, আগামী ৭ জানুয়ারির নির্বাচন উৎসবমুখর ও অংশগ্রহণমূলক পরিবেশে হবে।

যশোর—৪ আসনের বিএনএফের প্রার্থী সুকৃতি কুমার মন্ডল বলেন, ‘আমরা আশা করি ভোট অংশগ্রহণমূলক এবং সুশৃঙ্খলভাবে হবে। আমি নির্বাচনে জয়লাভ করলে ভবদহ সমস্যার সমাধান করবো।’

যশোর—৫ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াকুব আলী জানান, ‘শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী তৃণমূলের নেতাকর্মীদের চাপের কারণে প্রার্থী হয়েছেন এবং জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।’

যশোর—২ আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী ফিরোজ শাহ জানান, ‘এবার ভালো নির্বাচন হবে।’

যশোর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবরাউল হাছান মজুমদার বলেন, নির্বাচন কমিশনের শিডিউল অনুযায়ী বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পত্র জমার শেষ দিন ছিল। প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও স্ব— স্ব উপজেলার সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আমরা উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছি।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০১৭১১-১৮২০২১, ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
পুরাতন খবর
FriSatSunMonTueWedThu
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram