২০শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিদায় ২০২৩, স্বাগত ২০২৪
60 বার পঠিত

আরও একটি নতুন বছর আমাদের দ্বারে । নতুনের আবাহন, স্বপ্ন ও সম্ভাবনা নিয়ে প্রতি বছর পহেলা জানুয়ারি আমাদের মধ্যে আসে। পুরনোকে বিদায় দিয়ে নতুনকে বরণ করে নেয়াই মানুষের সহজাত প্রবণতা। আমাদের জাতীয় জীবনে ২০২৩ ছিল একটি গুরুত্বপূর্ণ বছর। নানা ক্ষেত্রে উত্থান—পতনের মধ্য দিয়ে পার হয়েছে বছরটি। অনেক সীমাবদ্ধতার মধ্যেও সবার চেষ্টা ছিল এগিয়ে যাওয়ার। প্রতিটি বছরই আমাদের কাছে সেরা। তবে বিদায়ী বছর থেকে নতুন বছরের আগমনের পেছনে থাকে অনেক স্বপ্ন অনেক আশা। কেননা, সবাই প্রার্থনা করেন বিগত সাল থেকে এবারের নতুন বছর যেন ভালো কাটে।

দেশের অবকাঠামো খাতে গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক সৃষ্টির মতো আলোচিত ঘটনা থাকলেও বছরজুড়ে আলোচনায় ছিল অর্থনৈতিক খাত ও মানুষের স্বাভাবিক জীবন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে বিদায়ী বছরে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গন চাঙ্গা ছিল। শেষ পর্যন্ত নির্বাচনমুখী হয় দেশের রাজনীতি। অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য মার্কিন ভিসানীতির চাপ বৈদেশিক শক্তি চীন—রাশিয়া—ভারতকে বাংলাদেশের কাছাকাছি এনেছে। এমন বেশ কিছু আলোচিত—সমালোচিত ঘটন—অঘটন এবং ক্রিয়া—প্রতিক্রিয়ার মধ্য দিয়ে শেষ হতে চলেছে ২০২৩ সাল।

এটা সত্য, বিশ্ববাজারে চাহিদা কমে যাওয়া ও মজুরি নিয়ে শ্রমিক অসন্তোষের কারণে রপ্তানি আয় হ্রাস পাওয়া, রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়ে ধীরগতি ও ডলার সংকটের কারণে বৈদেশিক লেনদেনের ভারসাম্যে বিগত বছরে বড় ধরনের চাপ ছিল। অর্থনৈতিক দিক থেকে বাংলাদেশের জন্য ২০২৩ সাল ছিল মন্দা আর মূল্যস্ফীতির চাপের বছর। এ ছাড়াও ছিল রাজনৈতিক অস্থিরতার বছর। রাজস্ব খাতে বিশাল ঘাটতির কারণে সরকারের ঋণ নির্ভরশীলতা বেড়ে যাওয়ায় পরিস্থিতি আরো জটিল হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, চলতি অর্থবছরে সরকার ব্যাংক খাত থেকে ১ লাখ ৩২ হাজার ৩৯৫ কোটি টাকা ঋণ নেয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। বিভিন্ন প্রকল্পে ভারত, চীন ও রাশিয়া থেকে কঠিন শর্তে ঋণ নেয়ার প্রবণতা বেড়েছে। ব্যাংকিং খাতের সব সূচকই ছিল নিম্নমুখী। একদিকে খেলাপি ঋণ ও তারল্য সংকট বেড়েছে অন্যদিকে আয় কমেছে ব্যাংকগুলোর। বিদায়ী বছর সড়ক দুর্ঘটনা না কমে জ্যামিতিক হারেই বেড়েছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর তৎপরতার কারণে জঙ্গিরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারেনি।

সব মিলিয়ে ২০২৩ সালে উন্নয়ন প্রকল্পের ধারা ঊর্ধ্বগামী থাকলেও গণতন্ত্র সূচকের ক্ষেত্রে ধারাটি ছিল বিপরীত। পারস্পরিক সংঘর্ষের ফাঁদের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক ক্ষেত্রে অস্থিরতাকে সঙ্গী করে ২০২৩ বিদায় নিয়েছে। স্বাগত ২০২৪। এই নতুন বছর হচ্ছে নির্বাচনের বছর। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আন্তর্জাতিক চাপ সামলানোর পাশাপাশি দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের পর নতুন সরকারকে দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক সংকট থেকে উত্তরণের জন্য বেশ কিছু শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে।

বিগত বছরের সাফল্য—ব্যর্থতার প্রেক্ষাপটে নতুন বছরটি সুখময় ও শান্তিপূর্ণ হোক সেটাই নববর্ষে আমাদের প্রত্যাশা। নতুনের মধ্যেই নিহিত থাকে অমিত সম্ভাবনা। আর সেই সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে সুযোগ করে দেবে নতুন বছর। বিদায়ী বছর থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আমরা চাই, নতুন সরকার জনগণের প্রত্যাশা, আবেগ ও অনুভূতিকে যথাযথ মূল্যায়ন করে দেশটির অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি আনতে সর্বাধিক গুরুত্ব দেবে। দেশ ও জাতির মঙ্গলে সবার ভেতরে লুকিয়ে থাকা সুপ্ত দেশপ্রেম জাগ্রত হোক, খুলে যাক সম্ভাবনার নতুন দুয়ার, নতুন বছরে এ প্রত্যাশাই করছি।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০১৭১১-১৮২০২১, ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
পুরাতন খবর
FriSatSunMonTueWedThu
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31 
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram