১৮ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বঙ্গোপসাগরকে জলদস্যুমুক্ত ঘোষণা করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বঙ্গোপসাগরকে জলদস্যুমুক্ত ঘোষণা করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সমাজের কথা ডেস্ক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, অচিরেই বঙ্গোপসাগরকে জলদস্যুমুক্ত ঘোষণা করা হবে। সুন্দরবনের মতো সমুদ্রের জলদস্যুরাও স্বাভাবিক জীবন যাপনের সুযোগ খুঁজছে। আমরা তাদের সেই সুযোগ দিব। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা ও ধর্ষণ মামলা ছাড়া সব ধরণের মামলা থেকে অব্যাহতির বিষয়ে আমরা বিবেচনা করবো। তবে, যারা এখনও আত্মসমর্পন করেনি, যারা অপরাধী তাদের কাউকে আমরা ছাড় দেব না। যে কোনো মূল্যে অপরাধীদের দমন করবো। সুতরাং অন্য ডাকাত ও জলদস্যুরা আত্মসমর্পণ করুন। এ সুযোগ কাজে লাগান।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুরে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় র‌্যাব-৭ এর এলিট হলে জলদস্যু আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জলদস্যুতা আপনাদের জীবনে কখনও শান্তি ফিরিয়ে আনবে না। বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন সমস্ত উপকূলীয় অঞ্চলকে আমরা জলদস্যু-ডাকাত মুক্ত করবো। কাউকে ক্ষমা করা হবে না। জন্মলগ্ন থেকে সন্ত্রাস নির্মূল করতে গিয়ে র‍্যাবের ৩৩ জন সদস্য জীবন দিয়েছেন। হাজার হাজার র‍্যাব সদস্য আহত হয়েছেন। অনেকের অঙ্গহানিও হয়েছে।

জলদস্যুদের পুনর্বাসনের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করবো। জলদস্যুরা যাতে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারেন সেই ব্যবস্থা করবো। তাদের যার যেটি লাগে সেটি দিয়ে পুনর্বাসন করা হবে। আর যাতে কোন জলদস্যুর সন্তানকে বাবা জলদস্যু বলে কথা শুনতে না হয়। সে জন্য সুন্দর জীবন সবার দরকার। এই পৃথিবীতে সবার সুন্দরভাবে বাস করার অধিকার রয়েছে। কেউ দুর্বিসহ জীবন যাপন করতে চায় না। সুতরাং আমরা যে সুযোগ দিচ্ছি তাতে কাজে লাগিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। অনেকে জলদস্যু জীবন ছেড়ে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তাদের দেখে অন্যরা উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন।

চট্টগ্রামের উন্নয়নের কথা উল্লেখ্য করে আসাদুজ্জামান খান এমপি বলেন, বন্দর টানেল বেটার্মিনাল হয়েছে চট্টগ্রাম তো আর সেই চট্টগ্রাম নেই- অনেক উন্নয়ন হচ্ছে। সড়ক, সেতু সব হয়েছে। উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের সিকিউরিটির জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। ওসব এলাকায় জলদস্যুরা কোণঠাসা হয়ে পড়েছে। সুন্দরবনের জলদস্যুদের ভালো অবস্থা দেখে আজ তারা উদ্বুদ্ধ।

সাংবাদিকদের সহযোগিতায় এ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। তাদের ধন্যবাদ জানাই। আর যারা ফিরে আসেন নাই, তাদেরকেও ফিরে আসার আহ্বান জানাই।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আজ এখানে একজন মহিলা জলদস্যুও আমাদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। তারা কখনও অত্যাচারিত বা নিপীড়িত হয়ে বাধ্য হয়েই এসব কাজে জড়িয়ে থাকেন। স্থানীয় প্রভাবশালী লোকেরাও তাদের বাধ্য করেন এসব কাজে জড়াতে। জনগণের কাছে র‍্যাব একটি আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতীক। সুন্দরবনে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবন রক্ষায় ২০১২ সালে র‍্যাবকে টাস্কফোর্স হিসেবে দায়িত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। র‍্যাবের দুঃসাহসিক অভিযানে সুন্দরবন জলদস্যু মুক্ত হয়।

২০১৮ সালের ২ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী সুন্দরবনকে জলদস্যু মুক্ত ঘোষণা করেন জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা যাতে আর সে কাজে ফিরতে না পারে সেজন্য তাদের আর্থিক অনুদান দেওয়া হচ্ছে। আজ তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছে। কেউ ব্যবসা করছে বা অন্য কাজ করছে। পাবনাতে ৬০০ ও সিরাজগঞ্জে ৩০০ এর অধিক চরমপন্থী গ্রুপের নেতাকর্মী আত্মসমর্পণ করেছে। তাদেরও সরকার সহযোগিতা করেছে।

বৃহস্পতিবার ১২টি গ্রুপের ৫০ জন ৯০টি অস্ত্রসহ আত্মসমর্পণ করেছে।

র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল মো.মাহবুব আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম-১১ আসনের সংসদ সদস্য এম আব্দুল লতিফ, পুলিশের মহাপরিদর্শক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন, র‌্যাবের মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায়, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. তোফায়েল ইসলাম, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি নুরে আলম মিনা। আত্মসমর্পণকারী জলদস্যুদের মধ্যে বক্তব্য দেন মাহমুদ করিম ও জসীম উদ্দীন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০১৭১১-১৮২০২১, ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
পুরাতন খবর
FriSatSunMonTueWedThu
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930 
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram