৩০শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ফন্টু চাকলাদারকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বসিত বেজপাড়ার ভোটাররা 
ফন্টু চাকলাদারকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বসিত মণিহার ফলপট্টি, ব্যাটারিপট্টি ও বেজপাড়ার ভোটাররা 
38 বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ২৯ মে যশোর সদর উপজেলার ভোট নিয়ে স্বপ্নের জাল বুনছেন ভোটাররা। আগামীর চেয়ারম্যানের কাছে প্রত্যাশা অনেক। কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, জলাবদ্ধতা ও যানজট নিরসন, চাঁদাবাজ, মাদকমুক্ত উপজেলা চান ভোটাররা। বুধবার মোটরসাইকেল মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী তৌহিদ চাকলাদার ফন্টুকে পেয়ে ভোটাররা তাদের প্রত্যাশার কথা জানান। তারা মনে করেন একমাত্র তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু পারেন তাদের চাওয়াকে পাওয়ায় পরিণত করতে। তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু গতকাল মণিহার ফলপট্টি, ব্যাটারিপট্টি ও বেজপাড়া এলাকায় গণসংযোগ করেন। এ সময় ভোটাররা তাকে জড়িয়ে ধরে আবেগতাড়িত হয়ে বলেন ‘সদর উপজেলার আগামীর কান্ডারীকে আমরা পেয়ে গেছি। এবারের ভোটে মোটরসাইকেলের জয় হবে ইনশালস্নাহ।’

শহরের ফলপট্টি এলাকার নতুন ভোটার সিফাত মাহমুদ। ভোট নিয়ে তার অনুভূতি কেমন এবং কেমন চেয়ারম্যান প্রয়োজন জানতে চাইলে বলেন, ‘আমি একজন সচেতন নাগরিক। ভোটাধিকার থাকায় আমার নিজের মতামতের গুরম্নত্ব আছে। আমি এমন একজন চেয়ারম্যান চাই যিনি তরম্নণদের নিয়ে ভাববেন, যিনি কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবেন, সমাজের মানুষের প্রতি দায়িত্বশীল হবেন।’ তিনি আরো বলেন, সবচেয়ে বড় কথা, চেয়ারম্যান হবেন যিনি ভোটের আগে যেমন, পরেও তেমন সৌহার্দ্যপূর্ণ আচরণ করবেন। এসব দিক থেকে এগিয়ে আসেন তরম্নণ শিল্প উদ্যোক্তা তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু।

আরেক ভোটার আশিকুর রহমান বলেন, ‘এখন বিশ্বায়নের যুগ। তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু আধুনিক চিšত্মা-চেতনার অধিকারী, তথ্য-প্রযুক্তিতে ভালো জ্ঞানী ও ধারণা রাখেন। আশা করি এসব দিক দিয়ে তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু এগিয়ে। তরম্নণরা তাকেই ভোট দিয়ে জয় করবেন।

তালেব রহমান বলেন, ফন্টু চাকলাদার সদর উপজেলার স্থানীয় লোক এবং বংশীয় লোক। সে শাহীন চাকলাদারে ভাই। শাহীনের ভাই হিসেবে সদর উন্নয়নের জন্য কাজ আনতে পারবেন ফন্টু। আমরা ফন্টুকে বিজয়ী করতে চাই।

দুই দোকানি বলেন, আমরা ফলপট্টিতে ব্যবসা করি। একপ্রার্থীর লোকজন অনেক সমস্যা করে। তারা আমার দোকান থেকে যখন তখন খাবার নিয়ে চলে যায়। কিন্তু টাকা পয়সা দেয় না। আবার টাকা চাইতে গেলে সন্ত্রাসীরা মারপিটের হুমকি ধামকি দেয়। উপজেলাতে সন্ত্রাসী চেয়ারম্যান চাই নে।

এক শ্রমিক নেতা বলেন, একজন চেয়ারম্যান এমন হওয়া উচিত, তিনি যখন একজন শ্রমিকের সঙ্গে কথা বলবেন তখন ওই শ্রমিক যেন মনে করেন তিনি তার নিজের মানুষের সঙ্গেই কথা বলছেন। ফন্টু চাকলাদার মানুষকে গুরম্নত্ব দেন।

মণিহার ফলপট্টি, ব্যাটারিপট্টি গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম মাহমুদ হাসান বিপু, জেলা শ্রমিকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুর রহমান, সহ-সভাপতি আজিজুল আলম মিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মোহাম্মদ লিটন, যশোর মোটর পার্টস ও টায়ার টিউব ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সবুজ, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন রাজিব, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা খায়ের, নাজমুস সিদ্দিকী পলাশ, শ্রমিক নেতা বিএম লক্ষ্মী, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা আরিফ, যুবনেতা রিফাত আহম্মেদ রাতুল, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা টিটো, ইকবল, হিরম্ন, সজল।

বেজপাড়ায় মোটরসাইকেল মার্কার গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন, পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের সভাপতি মফিজুর রহমান নান্টু, নেতা সিরাজুল ইসলাম, পিয়ার মোহাম্মদ পিয়ারম্ন, ইনামুল হক, নাসিব সিকদার, রাকিব, খোকন সিকদার, জয়েল, আহাদ সিকদার, ইব্রাহিম হোসেন জুয়েল, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক মাসুদ হাসান কৌশিক, সাংগঠনিক সম্পাদক ফাহমিদ হুদা বিজয়, ছাত্রনেতা তন্ময় প্রমুখ।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০১৭১১-১৮২০২১, ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
পুরাতন খবর
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram