মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

কত্তোকিছু হচ্ছে এখন সকাল-বিকেল নানান রকম খাচ্ছে ধোকা- মানুষ-বোকা প্রতারকের চক্রে হিসাব-নিকাশ বিকাশ ফাঁদে হোটেল, মোটোল, ফন্দিচাঁদে মানিব্যাগে দিচ্ছে টোকা হরেক পথোবক্রে।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

ফেব্রুয়ারি, ফেব্রুয়ারি মায়ের কথা-বুলি, শহীদস্মৃতি স্মরণ করে ছন্দকথায় দুলি। এমাস এলে শুদ্ধতারই দারুণ কথা চলে, আর মাসেতে বাংলিশে ক্যান তারাই কথা বলে?

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

কবিতায় গল্পতে অল্পতে অল্পতে শ্রমিকের দরদাম লেখা আছে নীতি-নাম। শাসনে শোষণে পেষণে পেষণে মাঠে ক্ষেতে শ্রম-যম কেটে নেয় হরদম।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

ভালোবাসি বাংলা মাগো ভালোবাসি প্রতিটা দিন, ক্ষণে ক্ষণে, মুহূর্ততে আছে আমার অনেকটা ঋণ। এই ঋণেরই হিসাব-নিকাশ কষতে রাজি ভ্যালেন্টাইন, আরও কি বাকি তোর দিবসে- ভালোবাসা-প্রেমের বীণ?

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

শিমুল গাছে রঙ লেগেছে লাল টুকটুক দুল, আরো আছে আগুন জ্বলা- গাছে অশোক ফুল। এমন দিনে সালাম, রফিক তোমায় মনে পড়ে, গর্বে আমার বুক উঁচু হয় বাংলাভাষার তরে।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

বইমেলাতে বইয়ের পোকা হাঁটে সকাল-সন্ধ্যে, হয় সে মাতাল ছন্দ-তালে নতুন বইয়ের গন্ধে! পাঠক বলে নাটক-ফ্যাশন হয় না তার আর সহ্য সেলফি-ফাঁকি, অটোগ্রাফে ভাঙে যে তার ধৈয্য।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

অ আ ক খ ই ভালোবাসি ভালোবাসি কথা কই। গাই গান বাংলা ভাষাতে ভালোবাসা নিয়ে-ই বেঁচে রই অ আ ক খ ই অ আ ক খ ই

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

শীতের হাওয়া যাচ্ছে চলে আসছে ধীরে বসন্ত, ফুলে ফুলে মন রাঙাবে ভালোবাসা অনন্ত। জ্বলবে ফাগুন আগুন রঙে সাজবে সবাই আনন্দে, আঁকবে কবি ছবির এদেশ ছন্দকথায় সানন্দে!

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

ব্যস্ত নগর-জীবন, সমাজ ব্যস্ত এখন সবাই, ব্যস্ত অলিগলির পাশে ব্যস্ত থাকে ক’ভাই! ও ভাই সবাই বলতে পারো ক’ভাই করে কি? ‘টিজিং’ভয়ে আতঙ্কিত ছাত্রী, নারী, ঝিঁ!

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

‘ডিজিটাল’-এ মেলা জুড়ে ক্ষুদে ক্ষুদে ‘উদ্ভাবক’, তোমাদেরই চিন্তা-জ্ঞানে বিজ্ঞানেরই বিজয় হোক। দেশের জন্য এগিয়ে চলো জেলার সুনামও আসুক, জয় জয়কার হোক যশোরের আনন্দতে মন ভাসুক।