শুক্রবার, নভেম্বর 16, 2018

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

মনোনয়ন আবেদনের বেচাবিক্রি চলছে বেশ, এরই মাঝে দোকান, মোড়ে আলোচনায় ভোটের রেশ- কে পাচ্ছে টিকিট কাদের এই ভাই না ওমুক বোন, ক্যানো কীসে পিছিয়ে গ্যালো অপেক্ষার সেই নির্বাচন?

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

হচ্ছেটা কী এদিক সেদিক রাস্তা-হাঁটা মানুষ বেদিক এমন দিনে সময় কিনে যায় কি চলা বলো? ঘড়ির সাথে তাল মিলিয়ে আসল পথে চলো।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

জেইউজে নির্বাচনে পেলেন যারা জয়, কর্মকাজে সারাটি ক্ষণ থাকুক যে অক্ষয়। মন ও নজর কাড়ুক বাড়ুক সবারই সম্মান সদস্যরা হয়ে থাকুক তাদের সবার প্রাণ।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

হিম হিম রাত্রির ঢিমতাল ঘুম আয় আয় চাঁদ মামা দিয়ে দিই চুম। শাদা কাশ ফুলবন চলে গেছে আজ এমন দিনে চলে গায় গায় কাজ

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

চলছে না লঞ্চ কুয়াশাতে ছাড়ছে তো ফেরি, যাত্রীরা তাই ঘাটেই কাটাই পরে রাত্রিবেড়ি। ঠাণ্ডাদিনের এমন রাতে উদাস বৈরি হাওয়ায় চাঁদের সাথে রাত কেটে যায় ঝাপসা স্মৃতি-চাওয়ায়।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

আগডুম বাগডুম ঘোড়াডুম' ভুম, দস্যি ছেলের চোখে কোন চুম? ২. 'হাট্টিমাটিম' হিম হিম দিন, শীত শীত ঠান্ডার সালাম নিন।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

বইছে হাওয়া নির্বাচনে জনগণের মনে সূয্যি মামা দিচ্ছে উঁকি মনোনয়ন কোণে। প্রচারণায় গঞ্জোগ্রামে পোস্টারে পোস্টারে দোয়া-ভোটের আহ্বানও নজর সবার কাড়ে।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

জনগণের কষ্ট য্যানো আর না ম্যালে ডানা, আর না য্যানো বোম ফাঁটে ভাই জাগে না দলকানা। নির্বাচনের আগেই আসো বুঝে শুনে নিই ভেবে দেখে উন্নয়নে ভোটটা আমার দিই।

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

অসুখ বিসুখ হচ্ছে সদাই মনে কর্মকাজে রাজার নীতির কোণে চলছে কথা এমন দিনের গীতে তবু কথা হচ্ছে না শেষ রীতে

ছন্দকথা প্রতিদিন – সৈয়দ আহসান কবীর

ঝড় উঠেছে চায়ের কাপে বিষয় এখন সংলাপ, রাজনীতি আর পলিটিক্সে মাথার ওপর বেশ চাপ। রাজনীতিতে দাবার ঘুঁটি কে যে কাকে চেক্ দেয়, রাজায় রাজায় যুদ্ধ বাধে উলুখাগড়ার প্রাণ যায়!