বাগেরহাট-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

কামরুজ্জামান, বাগেরহাট ॥ তালুকদার আব্দুল খালেক খুলনার মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় (রামপাল-মোংলা) বাগেরহাট-৩ আসনটি শুন্য হওয়ায় সেখানে উপ-নির্বাচন ২৬ জুন অনুষ্ঠিত হবে। এরইমধ্যে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসাবে মনোনয়নপত্র কিনেছেন মেয়র খালেক তালুকদারের সহধর্মীনি হাবিবুন নাহার তালুকদার। মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাট জেলা নির্বাচন অফিস থেকে সহকারী জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শৈলেন্দ্র নাথ মন্ডলের কাছ থেকে মনোয়নয়পত্র ক্রয় করা হয়। আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুন নাহারের পক্ষে মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেন, তার ভাতিজা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কৃষি ও সমবায় উপ-কমিটির সদস্য, বাগেরহাট পৌরসভার প্যানেল মেয়র তালুকদার আব্দুল বাকী। এ সময়ে হাবিবুন নাহারের দেবর তালুকদার আব্দুল জলিলসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এই আসনের উপ নির্বাচনে অংশ নিতে চিত্রনায়ক সাকিল আহসানও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেছেন।
এরআগে সোমবার সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সর্বসম্মতিক্রমে বাগেরহাট-৩ (রামপাল-মংলা) আসনের উপ-নির্বাচনে খুলনার নব নির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের সহধর্মীনি হাবিবুন নাহার তালুকদারকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়।
আসনটিতে তালুকদার আব্দুল খালেক সংসদ সদস্য ছিলেন। খুলনা সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার জন্য তিনি স্পিকারের কাছে তার সংসদ সদস্য পদ থেকে অব্যহতি নিয়েছিলেন। এরপর স্পিকার নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিলে ১০ এপ্রিল আসনটি শুন্য ঘোষণা করা হয়। পরে তফসীল ঘোষণার করা হলে আ’লীগ তাদের প্রার্থী চুড়ান্ত করে। ইসি’র রোডম্যাপ অনুযায়ী ২৪ মে মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ সময়, ২৭ মে বাছাই এবং ৩ জুন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ধার্য করা হয়েছে। আর ভোট গ্রহণ হবে ২৬ জুন।
রামপাল-মোংলা এই দুই উপজেলা নিয়ে বাগেরহাট-৩ আসন। দুই উপজেলায় ১৬টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে মোট দুই লাখ ২৬ হাজার ২৪৯ ভোটার রয়েছে। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার হচ্ছে ১ লাখ ১৩ হাজার ২৩৮ ও নারী ভোটার হচ্ছে ১ লাখ ১৩ হাজার ১১ জন। এই আসনের ৯০টি কেন্দ্রে ২৬ জুন ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

SHARE