ঝিনাইদহে কালবৈশাখীর আঘাতে লন্ড ভন্ড ২ গ্রামের ২৫ টি পরিবার ॥ দুর্গতদের পাশে ডিসি

সাজ্জাদ আহমেদ, ঝিনাইদহ॥ কাল বৈশাখী ঝড়ের আঘাতে লন্ড ভন্ড হয়ে হয়ে পড়েছে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ফুরসন্দি ইউনিয়নের জিথর ও বামনাইল গ্রামের প্রায় ২৫টি পরিবার। ঝড়ে উড়ে গেছে পল্লী মঙ্গল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের টিনের চাল,মানুষের বসবাস করার ঘর,গরুর গোয়াল, মন্দিরসহ অসংখ্য গাছ পালা। খবর শুনে ঘটনাস্থলে যান ফুরসন্দী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ আব্দুল মালেক মিনা ও ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা শুভাগত বিশ্বাস। অন্যদিকে খোলা আকাশের নিচে বসবাস এর খবর পেয়ে গতকাল বিকাল ৩ টায় এই দুইটি গ্রামে প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিল থেকে চাল ও নগদ টাকা নিয়ে তাদের মাঝে উপস্থিত হন ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ। ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিটি পরিবারের খোঁজ খবর নিয়ে তাদের হাতে ৩০ কে জি করে চাল তুলে দেন। একজনের চোখে আঘাত লাগার কারনে তার চিকিৎসা বাবাদ নগদ ৫ হাজার টাকা ও ঘরের উপর পড়ে থাকা গাছ সরাতে নগদ ৩ হাজার টাকা তুলে দেন। সেই সাথে প্রতিটি পরিবার কে ৩ হাজার টাকা ও এক বান্ডিল করে ঢেউ টিন বরাদ্দ দেওয়া হয়। ক্ষতিগ্রস্থ এই অঞ্চলের সাধারন মানুষ জেলা প্রশাসককে তাদের মাঝে পেয়ে তাদের সমস্যার কথা ভুলে গিয়ে আবেগে আত্মহারা হয়ে পড়ে। এই সময়ে জেলা প্রশাসকের সাথে ছিলেন জেলা ত্রাণ ও পুনবাসন কর্মকর্তা আবু সালেহ মোঃ হাসনাত, সদর উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা শুভাগত বিশ্বাস, ফুরসন্দী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ আব্দুল মালেক মিনা, ইউ পি সদস্য কবির হোসেন, শিরীন শিলা প্রমুখ। এই সময়ে জেলা প্রশাসক প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য মানুষের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন।

SHARE