ওয়ার্ডে ঘুরে রোগীদের খোঁজ নেওয়ার প্রত্যয়

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের নবাগত তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু নিয়মিত ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ঘুরে রোগীদের চিকিৎসা বিষয়ে খোঁজ নেওয়ার প্রত্যয় বক্ত করেছেন। ভর্তি রোগীদের কাছে ঠিকমতো চিকিৎসক যাচ্ছে না; বিভিন্ন সময়ের অভিযোগ আমলে নিয়ে তিনি নিজে এ বিষয়ে তদারকির সিদ্ধান্ত নেন। রোববার সকালে নিজ সভাকক্ষে যশোরের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়ে তিনি এ পরিকল্পনার কথা বলেছেন। এসময় চিকিৎসক, যন্ত্রপাতি ও ভবন সংকট, সংশ্লিষ্টদের দায়িত্ব অবহেলা এবং অনিয়মের বিষয়ে তার অবস্থান ও ভাবনা মিডিয়ার সামনে তুলে ধরে তিনি রোগীদের সেবায় নিজেকে নিবেদিত রাখার ইচ্ছার কথা জানান।
তিনি বলেন, হাসপাতালের সকল ওয়ার্ডে সন্ধ্যা ও রাতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের রাউন্ড নিশ্চিত করতে ও সেবার মান উন্নয়নে আজ সোমবার থেকে প্রশাসনিক তদারকি শুরু করবেন। এছাড়া দক্ষিণবঙ্গের একমাত্র স্বতন্ত্র ২৮ শয্যা করোনারি কেয়ার ইউনিট জনবলসহ এসির সমস্যা সমাধান ও ইসিজি সংকট নিরসনে জন্য চলতি সপ্তাহে মন্ত্রণালয়ে আবেদন পাঠিয়েছে বলে উল্লেখ করেন।
এ সময় তিনি আরও বলেন, যোগদানের পরে অ্যাম্বুলেন্স অপসারণ করতে না পারলেও হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্স নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। পাশাপাশি রোগী দুর্ভোগ কমাতে একটি নতুন টিকিট কাউন্টার নির্মাণ, দালাল নিয়ন্ত্রণ, পুরাতন ভবন ভেঙ্গে নতুন ভবন ও বর্তমান প্রশাসনিক ভবনের উপরে চারতলা ভবন সম্প্রসারণের উদ্যোগ হাতে নিয়েছেন। বর্তমানে প্রশাসনিক অনুমোদনের জন্য ফাইলটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও অর্থ মন্ত্রণালয়ে অবস্থান করছে। এ বাদেও সেবার মান উন্নয়নে ও দালালমুক্ত করা, ডিজিটাল এক্সে-রে, ইটিটি মেশিন সঙ্কট দ্রুত নিরসন করা হবে এবং সেন্ট্রাল ক্যাস কাউন্টার চালুর আশ্বাস দেন নতুন এই তত্ত্বাবধায়ক।
এদিকে উন্মুক্ত আলোচনা সভায় সাংবাদিকরা হাসপাতালের বিভিন্ন উন্নয়ন, সমস্যা ও করণীয় সর্ম্পকে নবাগত তত্ত্বাবধায়কে অবগত করেন। এ সময় হাসপাতালের দালাল সমস্যা এবং জরুরি মুহুর্তের রোগীদের জরুরি বিভাগে চিকিৎসার ব্যবস্থা করার প্রস্তাব করেন। সরকারি ওষুধ সরবরাহ হাসপাতালে থাকলেও রোগীদের সা পাওয়া, চিকিৎসকদের কর্তব্য অবহেলা, চিকিৎসকের পরিবর্তে জরুরি বিভাগে ব্রাদার-বয়’র চিকিৎসা দেওয়া, রোগীদের ওয়ার্ডে আনা নেওয়ার জন্য টাকা নেওয়া বিষয়ে তুলে ধরা হয়। এছাড়া ব্লাড ব্যাংকে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া, ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের হাসপাতালে ভিড় করার বিষয়ে নজর দিতে আহবান জানান।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, প্রেসক্লাবের সহসভাপতি ও লোকসমাজের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আনোয়ারুল কবীর নান্টু, গ্রামের কাগজ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, স্পন্দনের নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাভলু, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন জেইউজের সভাপতি সাজেদ রহমান, সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক সমাজের কথার বার্তা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন, দৈনিক সত্যপাঠের সম্পাদক হারুন অর রশিদ সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি নূর ইসলাম প্রমুখ।
হাসপাতালে নবাগত তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটুর সাথে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী পরিচালক ডা. আব্দুর রউফ, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ওহেদুজ্জামান ডিটু, ডেন্টাল সার্জন ডা. কাজী শামীম আহম্মেদ, কার্ডিয়াক রেজিস্টার ডা. তৌহিদুর রহমান প্রমুখ। এ সময় নবাগত তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজদ লিটু সমস্যা সমাধানের বিষয়ে কাজ করবেন বলে জানান।

SHARE