মহেশপুর রিসোর্স সেন্টার বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকায় মাটিতে বসে শিক্ষকদের প্রতিবাদ

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি॥ প্রাথমিক শিক্ষকদের ট্রেনিং সেন্টারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকায় ট্রেনিং-এ আসা শিক্ষক-শিক্ষিকারা এর প্রতিবাদ করেন। এক পর্যায়ে ট্রেনিং সেন্টারের কর্মকর্তা মোহাম্মদ ঈশার কাছে বঙ্গবন্ধুর ছবি না টাঙ্গনোর কারণ জানতে চান। জবাব না পেয়ে শিক্ষকরা হট্রগোল শুরু করে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে শিক্ষকদের শান্ত করেন। পরে শিক্ষকরা মাটিতে বসে এর প্রতিবাদ জানান। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে মহেশপুর উপজেলা রিসোর্স সেন্টারে।
প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মাহাবুব আজম ইকবাল ঝড়– জানান, ২৭ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা নিয়ে মহেশপুরের জলিলপুর রিসোর্স সেন্টারে ট্রেনিং শুরু হয়। শুরুর সময়ই ট্রেনিং সেন্টারের হল রুমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি না থাকার কারণ জানতে চাওয়া হয় রিসোর্স সেন্টারের কর্মকর্তা ইনস্ট্রাক্টর মোহাম্মদ ঈশার কাছে। জানান দেন অফিস রুমে তো আছেই। তার কাছ থেকে জবাব না পেয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকারা মাটিতে বসে এর প্রতিবাদ জানায়।
রিসোর্স ট্রেনিং সেন্টারের কর্মকর্তা ইনস্ট্রাক্টর মোহাম্মদ ঈশা জানান, ট্রেনিং সেন্টারের রুমটি ঠিকমত খোলা হয় না। যে কয়দিন ট্রেনিং হয় শুধু মাত্র সেই কয়দিন খোলা হয় রুমটি। ছবি টাঙ্গানো ছিল না। পরে শিক্ষকদের প্রতিবাদের কারণে ছবি কিনে আনা হয়েছে।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহাবুবুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ট্রেনিং সেন্টারের মধ্যে আজ পর্যন্ত কোন দিনই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ছিলোনা। এখন থেকে টাঙ্গনো হবে।
থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) লস্কর জায়াদুল হক জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকায় ট্রেনিং-এ আসা শিক্ষক-শিক্ষিকারা এর প্রতিবাদ করেন। পরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টাঙ্গনোর পরে শিক্ষকরা শান্ত হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম জানান, শিক্ষকদের ট্রেনিং সেন্টারে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকায় ট্রেনিং-এ আসা শিক্ষক-শিক্ষিকারা প্রতিবাদ করেন। পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়ে গেছে।