সিরিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ে ‘২ রুশ নিহত’

সমাজের কথা ডেস্ক॥ চলতি মাসে সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন বাহিনীর সঙ্গে সরকারপন্থি বাহিনীর লড়াইয়ে নিহতদের মধ্যে রাশিয়ার যোদ্ধারাও ছিলেন বলে জানিয়েছেন তাদের সাবেক সহযোগীরা।
সোমবার তারা এ তথ্য জানিয়েছেন বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।
যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ৭ ফেব্রুয়ারি রাতে মার্কিন জোট বাহিনী ও জোট বাহিনীর সমর্থিত বাহিনী সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের অনুগত বাহিনীর বড় ধরনের একটি হামলা প্রতিহত করে, তখন আসাদ অনুগত বাহিনীর শতাধিক যোদ্ধা নিহত হন।
রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই ঘটনার সময় রাশিয়ার কোনো সৈন্য ওই এলাকায় ছিলেন না।
কিন্তু দিয়ের আল জোর প্রদেশের ওই ঘটনায় সরকারপন্থি বাহিনীর হয়ে রাশিয়ার দুই ব্যক্তি লড়াই করছিলেন এবং তারা নিহত হয়েছেন বলে তাদের সাবেক সহযোগীরা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।
নিহত দুই রুশের মধ্যে একজন কালিনিনগ্রাড থেকে আসা কসাক যোদ্ধা, তার নাম ভ্লাদিমির লোগিনোভ বলে জানিয়েছেন কসাক সমাজের নেতা ম্যাক্সিম বুগা।
রয়টার্সকে তিনি বলেছেন, লোগিনোভ ৭ ফেব্রুয়ারির দিকে ‘আরো বহু’ রুশ যোদ্ধার সঙ্গে নিহত হয়েছেন।
নিহত অপর রুশের নাম কিরিল আনানিয়েভ। তিনি রাশিয়ার ন্যাশনালিস্ট পার্টির সদস্য ছিলেন এবং একজন কট্টর রুশ জাতীয়তাবাদী ছিলেন বলে জানিয়েছেন দলটির মুখপাত্র আলেকজান্দার আভেরিন।
৭ ফেব্রুয়ারির একই লড়াইয়ে গোলার আঘাতে আনানিয়েভ নিহত হয়েছেন বলে রয়টার্সকে জানিয়েছেন তিনি।
তবে এ দুজনের মৃত্যুর বিষয়টি স্বাধীনভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।
সিরিয়ায় রাশিয়ার কতজন নাগরিক নিহত হয়েছেন এবং তারা কী পরিস্থিতিতে নিহত হয়েছেন তা প্রকাশ করার জন্য প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাশিয়ার উদারনৈতিক রাজনীতিক গ্রিগরি ইয়াভলিনস্কি। আগামী মাসে রাশিয়ায় হতে যাওয়া প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের অন্যতম প্রার্থী তিনি।