জম্মুর সেনা ঘাঁটিতে হামলা ভারত-পাকিস্তানের পাল্টাপাল্টি হুঁশিয়ারি

সমাজের কথা ডেস্ক॥ জম্মু-কাশ্মিরের সুঞ্জওয়ান সেনা ঘাঁটিতে কয়েকমাসের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তান একে অপরকে পাল্টাপাল্টি হুঁশিয়ারি দিয়েছে।
গত শনিবার সকালে একদল বন্দুকধারী জম্মুর ওই সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালায়। হামলায় পাঁচ সেনা এবং এক সেনা কর্মকর্তার বাবা নিহত এবং শিশুও নারীসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়।
ঘাঁটিতে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সন্ত্রাসীদের টানা প্রায় ৩৬ ঘণ্টা বন্দুক যুদ্ধ হয় এবং তিন সন্ত্রাসীকে গুলি করে হত্যা করা হয়।
ভারতের অভিযোগ, হামলাকারীরা পাকিস্তানের বিচ্ছিন্নতাবাদী দল জঈশ-ই-মোহাম্মদ দলের সদস্য।
সোমবার ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারাম হুমকি দিয়ে বলেছেন, পাকিস্তানকে এজন্য ‘মূল্য দিতে হবে’।
তিনি বলেন, “আমি সুনির্দিষ্ট করে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর কথা বলছি না। তবে এটা বলব, পাকিস্তানকে এই দুঃসাহস দেখানোর জন্য মূল্য দিতে হবে। আমি আবারও বলছি, তাদেরকে এর দাম দিতে হবে।”
পাকিস্তান কাশ্মিরের জঙ্গিদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয় বলে ভারতের দীর্ঘদিনের অভিযোগ।
ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলার হুঁশিয়ারির জবাবে পাকিস্তান সীমান্ত পেরিয়ে তাদের ভূখ-ে হামলার ব্যাপারে ভারতকে সতর্ক করেছে।
পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ভারতীয় কর্মকর্তাদের দায়িত্বজ্ঞানহীন বিবৃতি এবং ভিত্তিহীন অভিযোগ দায়েরের কথা এখন সবাই জানে। সেখানে কিছু হলে কোনো ধরনের তদন্ত ছাড়াই তারা বিবৃতি দিয়ে বসে।”
অস্ত্রের মাধ্যমে ভারত বর্ববরোচিতভাবে কাশ্মির দখলের চেষ্টা করছে এবং তাদের ওই কা- থেকে বিশ্ববাসীর মনোযোগ সরাতেই তারা এ ধরনের অভিযোগ করে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
“আশা করি আন্তর্জাতিক বিশ্ব ভারত সরকারকে তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা কাশ্মিরে অবর্ণনীয় নিষ্ঠুরতা ও বাড়তে থাকা নৃশংসতা বন্ধের আহ্বান জানাবে। নিয়ন্ত্রণ রেখায় তারা যদি কোনো ধরনের দুঃসাহস দেখানোর চেষ্টা করে তবে তাদের প্রতিহত করা হবে।”
ওদিকে, সোমবার সকালেও ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের শ্রীনগরে সিআরপিএফ’র একটি ক্যাম্পে আত্মঘাতী হামলা হয়েছে বলে জানায় এনডিটিভি।