মাগুরায় জনতার বাধার মুখে কাজ বন্ধ পল্লী বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনে কলেজ অধ্যক্ষের প্রায় কোটি টাকার ক্ষতির অভিযোগ

শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধি॥ মাগুরার কেচুয়াডুবি গ্রামের পল্লী বিদ্যুতের লাইন স্থাপনে জগদল কলেজের অধ্যক্ষের প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হতে চলেছে। প্রায় আধা কিলোমিটার জুড়ে অধ্যক্ষের জায়গার উপর রাস্তার দুইধার দিয়ে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগের জন্য খুটি পোতা হয়েছে। এ ছাড়া খুটি পোতার সময় পল্লী বিদ্যুতের লোকজন অধ্যক্ষের পারিবারিক কবরস্থানেরও ব্যাপক ক্ষতি করেছে। এদিকে নিরাপদ ও সঠিক স্থানে বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনের জন্য অধ্যক্ষ মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার বরাবর দরখাস্ত দিয়েছেন। জানা গেছে অধ্যক্ষ আবু তাহের আলী ও তার ভাইরা শহিদুল ইসলামের জমির উপর দিয়ে যশোর মাগুরা মহাসড়কের পশ্চিম পার্শ্ব দিয়ে ইতিপূর্বে ৩৩ কেভি লাইন টানা হয়েছে। কিন্তু আবারো সম্প্রতি রাস্তার পূর্বপাশ দিয়ে তাদের বাড়ী সংলগ্ন জমির উপর, বাগানের ভিতর, কবরের পার্শ্বে ও মার্কেটের উপর দিয়ে ১১ কেভি বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনের জন্য খুটি পোতা হয়েছে। নতুন এই লাইন স্থাপন হলে মুল্যবান বাগান নষ্টসহ তার প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হতে পারে। এ ছাড়া বড় বড় গাছ ও বাঁশ থাকার কারনে ঝড় বৃষ্টি হলে অগ্নিকান্ডে জনজীবনে মারাত্বক ক্ষতি হতে পারে। এদিকে অভিযোগ দেয়ার পরও গত ১২ জানুয়ারী পল্লী বিদ্যুতের লোকজন তার টানাতে আসলে ক্ষতিগ্রস্থদের সাথে তাদের মারামারি হয়। এতে কাজ বন্ধ হয়ে যায়। সূত্র এই জায়গা দিয়ে নতুন লাইন স্থাপন করতে গেলে খুন জখমেরও সম্ভাবনা রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের দাবী যে পাশ দিয়ে পূর্বে লাইন গেছে সেই পাশ দিয়েই পুনরায় লাইন নেয়া হোক। এ ব্যাপারে মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজারের সাথে যোগাযোগ করা হলে কাজ বন্ধ হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, মুলত যে জায়গার উপর দিয়ে গাছ কেটে লাইন টানানো হচ্ছে সেই জায়গা অধ্যক্ষের বাড়ী সংলগ্ন হলেও ঐ জায়গাটি সড়ক ও জনপথের।

SHARE