আমলাদের প্রতি রাষ্ট্রপতি মনে রাখবেন জনগণের টাকায় সংসার চলে

সমাজের কথা ডেস্ক॥ জনগণের টাকায় সরকারি কর্মচারীদের সংসার চলে মনে করিয়ে দিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, কর্মক্ষেত্রে তারা যে সেবা দেন, তা জনগণের প্রতি তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য, দান বা দয়া নয়।

শনিবার রাজধানীতে ঢাকা অফিসার্স ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি এ কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, “গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী জনগণই সকল ক্ষমতার মালিক। তাই আপনাদের প্রতিটি কর্মকান্ডে জনগণের কল্যাণকে প্রাধান্য দিতে হবে। মনে রাখবেন, জনগণের ট্যাক্সের টাকায় সরকার চলে, আপনাদের সংসার চলে। কর্মক্ষেত্রে যে সার্ভিস দেন তা জনগণের প্রতি আপনাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। দান বা দয়া নয়।”
সরকারি আমলাদের কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা আনার ওপর জোর দিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, “বর্তমান সরকার দেশ জনগণের কল্যাণে বহুমুখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এসব কর্মসূচি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে আপনারা অনেকেই প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত আছেন।
“সরকারের নীতি নির্ধারণী কর্মকাণ্ডেও আপনাদের সহায়ক ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনাদেরকে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও গতিশীলতা আনতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। সব ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত প্রভাব ও বিতর্কের ঊর্ধ্বে থেকে সততা, নিষ্ঠা ও নিরপেক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে।”
রাষ্ট্রপতি সরকারি কর্মচারীদের আমলাতান্ত্রিক জটিলতা থেকে দূরে থাকারও পরামর্শ দেন।
১৯৬৭ সালে প্রতিষ্ঠিত অফিসার্স ক্লাবকে সাম্প্রদায়িক দেশের সম্প্রীতির ঐতিহ্যকে সমুন্নত রাখার আহ্বানও জানান প্রতিষ্ঠানটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রাষ্ট্রপ্রধান আবদুল হামিদ।

SHARE