নড়াইল ২ আসনের এমপি হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি॥ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ সরদারের ছেলে যুবলীগ কর্মী এনামুল সরদারকে (৩২) মারপিটের অভিযোগে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে লোহাগড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স চত্বরে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আহত এনামুল সরদারের চাচা মুক্তিযোদ্ধা আসাদ সরদার। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, গত ৩০ অক্টোবর লোহাগড়ার কুমড়ি গ্রামের বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ সরদারের ছেলে এনামুল সরদারকে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হাফিজুর রহমান ও তার লোকজন লক্ষ্মীপাশা চৌরাস্তায় কিল, ঘুষি, লাথি মেরে মারাত্মক আহত করেন। ওইদিন সার দেওয়াকে কেন্দ্র করে এ মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ সময় যুবলীগ নেতা শেখ মাসুদুজ্জামান মারপিট ঠেকানোর চেষ্টা করেন। সংবাদ সম্মেলনে শেখ হাফিজুর রহমান এমপি ও তার স্ত্রী সম্পর্কে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লাখ লাখ টাকা নিয়োগ ব্যাণিজ্য, টিআর, কাবিখা, সোলার প্রকল্পে দুর্নীতি নিয়েও অভিযোগ করা হয়। এছাড়া ১৯৭১ সালে নকশালের ভুমিকায় থেকে লোহাগড়া উপজেলার কুমড়ি গ্রামের ৫জন মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যার অভিযোগ করা হয়েছে সংসদ সদস্য শেখ হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে। এদিকে এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য শেখ হাফিজুর রহমান তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগগুলো সাংবাদিকদের কাছে অস্বীকার করে বলেন, এগুলো আগামী সংসদ নির্বাচনের আগে ষড়যন্ত্রের অংশ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এমএম গোলাম কবির, লোহাগড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ফকির মফিজুল হক, মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ সরদার, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা সরদার আব্দুল হাই, দিঘলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সরদার ওহিদুর রহমান, যুবলীগ নেতা মাসুদ পারভেজ প্রমুখ।

SHARE