ছেলেকে ‘হত্যার’ পর মায়ের ‘আত্মহত্যা’

সমাজের কথা ডেস্ক॥ কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলায় মা ও ছেলের লাশ পাওয়া গেছে; পারিবারিক কলহের জেরে শিশুপুত্রকে হত্যার পর ওই নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা পুলিশের।

 

সোমবার দুপুরে উপজেলার নওদা বহলবাড়ীয়া গ্রাম থেকে লাশ দুইটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে মিরপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান।

নিহতরা হলেন ওই গ্রামের আব্দুল করিমের স্ত্রী হেনা বেগম ও তাদের চার বছর বয়সী ছেলে হাসিবুল।

করিমের চাচাত ভাই সাইদুর রহমান মন্টু বলেন, “হেনা নাকি মাঝে মধ্যে কার সঙ্গে মোবাইলে কথা বলেন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বেশকিছুদিন ধরেই ঝগড়া, কলহ-বিবাদ চলছিল।

“আজ সকালেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। দুপুরে হেনা নিজের ঘরে ঢুকে প্রথমে হাসিবুলকে গলাটিপে হত্যার পর ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।”

ওসি রফিকুল বলেন, “খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের কারণে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।”