ঝিনাইদহে রিপন হত্যা মামলায় এক আসামির ফাঁসি

সাজ্জাদ আহমেদ, ঝিনাইদহ॥ ঝিনাইদহ শহরে আবুল কাসেম মো. ফজলুল হক রিপন হত্যা মামলায় মতিয়ার রহমান নামে এক আসামির মৃত্যুদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক সৈয়দ হাবিবুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত মতিয়ার রহমান ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পাগলাকানাই ইউনিয়নের ভড়–য়াপাড়া গ্রামের মৃত এজাহার জোয়ারদারের ছেলে। সাক্ষির সাক্ষ্য প্রমাণিত না হওয়ায় রায়ে আসামি আহাদ আলী ও আবু আব্দুল্লাহ মারুফ নামে দুইজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন বিচারক।
আদালত সুত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালের ২৫ জানুয়ারি রাতে ঝিনাইদহ শহরের শেরেবাংলা সড়কের সাত ভাই কুদ্দুস মার্কেটের সামনে ছোট কামারকুন্ডু গ্রামের আবু বক্কার মাষ্টারের ছেলে আবুল কাসেম মো. ফজলুল হক রিপনকে গুলি করে হত্যা করে অজ্ঞাত ৪/৫ জন যুবক। এ সময় সদর ফাঁড়ি পুলিশের টহলরত (টাউন দারোগা) পুলিশ মতিয়ার নামে এক যুবককে অস্ত্রসহ হাতে-নাতে আটক করেন। তবে অন্যরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ফাহমিদা খাতুন এ্যানি বাদি হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় ৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে আসামি করে মামলা করেন। দীর্ঘ ৭ বছর পর আদালত ১৫ জন সাক্ষির সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে সোমবার দুপুরে আসামি মতিয়ার রহমানকে দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যুদন্ড ও ১০ হাজার টাকার জরিমানার আদেশ দেন ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের বিজ্ঞ আদালতের বিচারক সৈয়দ হাবিবুল ইসলাম। তাছাড়া আহাদ আলী ও আবু আব্দুল্লাহ মারুফকে খালাশ প্রদান করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি এ্যাডভোকেট ইসমাইল হোসেন ও আসামি পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট তুষার কান্তি রায় ও এ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন।

SHARE