ছোট পর্দায় অভিষেক যশোরের মাহমুদার

বিনোদন ডেস্ক: ছোট পর্দায় অভিষেক হতে যাচ্ছে যশোরের মেয়ে মাহমুদার। এই ঈদের টিভি নাটকের নবাগতের তালিকায় এবার যুক্ত হলেন সংস্কৃতির রাজধানী হিসেবে খ্যাত যশোরের মাহমুদা আক্তার।

ঈদুল আযহা উপলক্ষে তার অভিনিত তিনটি নাটক প্রচারিত হবে। এরমধ্যে দুইটি এক ঘণ্টার নাটক। আর একটি ৬ পর্বের ধারাবাহিক। ধারবাহিক নাটকটির নাম হচ্ছে ‘রূপালী’। অন্য দু’টি হচ্ছে- ‘দয়াময়’ ও ‘সেলফি কুমার’। তিনটি নাটকই পরিচালনা করেছেন সাখাওয়াত হোসেন মানিক।

‘দয়াময়’ নাটকটি ঈদের আগের দিন এটিএন বাংলায় রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে প্রচারিতহবে। আর ঈদের দিন থেকে রাত সাড়ে ৮ টায় একুশে টিভিতে ৬ পর্বের ‘রূপালী’ নাটকটি প্রচারিত হবে।

ধারাবাহিক ‘রূপালী’ নাটকে প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করবেন চলচিত্র অভিনেত্রীপূর্ণিমা। আর তার মামাতো বোন চরিত্রে অভিনয় করবেন মাহমুদা আক্তার। নাটকেপূর্ণিমা মামার বাসায় থাকেন। মামাতো বোনের সাথে তার খুব সখ্য। সুখ-দুঃখনিয়ে মামাতো বোনের সাথে তার জীবনের একটি অংশ। নাটকটি দর্শকের ভালো লাগবেবলে আশা করছেন নবাগত অভিনেত্রী মাহমুদা আক্তার।

‘দয়াময়’ ও ‘সেলফি কুমার’ নাটক দু’টি হচ্ছে গ্রাম্যধাচের। ‘সেলফি কুমার’নাটকের দুই নায়িকার একজন হচ্ছেন মাহমুদা। অন্যজন হচ্ছেন লাক্স তারকা তাসনোভা এলভিন।

নবাগত মাহমুদা অনুভূতি প্রকাশে বলেন- বাংলা নাটকের প্রতি তার ছোটবেলা থেকেই আগ্রহ। একটু বুঝতে শেখার পর ভারতীয় সিরিয়ালের প্রতি অনিহা বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে মিডিয়াতে কাজ করার মনোবাসনা জাগে। হঠাৎ করেই অনলাইনের মাধ্যমে যোগাযোগ হয় প্রযোজক জাহাঙ্গীর আলমের সাথে। তারপর তিনিএবং পরিচালক সাখাওয়াত হোসেন মানিক অডিশন নেন। একপর্যায়ে টেলিভিশনে কাজের সুযোগ দেন বলে জানান মাহমুদা ।

তিনি আরো বলেন- প্রথম দয়াময় নাটকটি করার পর তারা মুগ্ধ হয়ে অন্য দু’টি নাটক করার প্রস্তাব দেন। আমি নাটকের গল্প শুনে এমন সুযোগ হাতছাড়া করিনি।
মাহমুদা ছোট বেলা থেকেই যশোরে আবৃত্তি ও নাচের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। এছাড়া তিনি দেশের একজন ভালোমানের বিতার্কিক।

মাহমুদা প্রথম ক্যামেরার সামনে আশা প্রসঙ্গে বলেন- বিভিন্ন সময় মঞ্চে আবৃত্তি, নাচ ও বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ায় খুব বেশি নার্ভাস ছিলাম না। তবে একটু ভয় কাজ করছিলো।

তিনি বাংলা নাটকের প্রতি অন্যরকম ভালোলাগার কথা বলে আগামীতে ভালোমানের গল্প অনুযায়ী কাজ করার আশা ব্যাক্ত করেন ।

SHARE