ভারতের অন্বেষা দত্ত ও শিশিরের দ্বৈতকন্ঠে নতুন এ্যালবাম

অমেদুল ইসলাম, চৌগাছা (যশোর) থেকে॥ চৌগাছার কণ্ঠশিল্পী ইসমাইল হোসেন শিশির ভারতের টিভি চ্যানেল জি বাংলার সা রে গা মা পা এর চ্যাম্পিয়ান অন্বেষা দত্তের সাথে দ্বৈতকণ্ঠে গান গাইলেন। ‘জোসনার লুকোচুরি’ গানটি বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। দেশের এই প্রথম কোন শিল্পী অন্বেষা দত্তের সাথে গান গাওয়ার সুযোগ পেলেন।
উপজেলার জামিরা গ্রামের শাহাজান আালী ও আনোয়ারা বেগমের পুত্র ইসমাইল হোসেন শিশির পেশায় চাকুরিজীবী হলেও দিনে দিনে তার শিল্পীস্বত্ত্বা নানাভাবে প্রকাশ পাচ্ছে। চার ভাই বোনের মধ্যে শিশির সবার বড়। বর্তমানে তিনি উপজেলার পৌরসদরের পাঁচনামনা গ্রামের খানাপাড়া মহল্লায় বসবাস করছেন। বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশনের একজন কর্মকর্তা তিনি। তার একক এলবাম একটি স্বপ্ন” শিল্পীর পরিচয় নিশ্চিত করেছে বেশ আগেই। এ্যালবামটি এপার-ওপার দু’বাংলাতেই ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। তিনি ২০১০ সালে উপজেলার আড়কান্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে যোগদান করে কর্মজীবনে প্রবেশ করেন। ২০১১ সালে হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশনে কর্মকর্তা পদে যোগদান করেন। বর্তমানে রিজিওনাল অফিস যশোরে কর্মরত আছেন। তিনি কর্মজীবনে প্রবেশের পরও গানের পিছনে লেগে ছিলেন। ১৯৯৯ সালে চৌগাছা কপোতাক্ষ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠি হতে ওস্তাদ রবিউল ইসলামের কাছে সংগীত জগতের হাতেখড়ি তার। পরবর্তীতে ২০০০ সালে যশোর সুরধ্বনী সংগীত নিকেতন হতে ওস্তাদ অর্দ্ধেন্দু প্রসাদ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীত এবং ওস্তাদ দিনবন্ধু দাসের নিকট নজরুল সঙ্গীত, ওস্তাদ আবু ফারাহ আব্দুল’র কাছে রবীন্দ্র সঙ্গীত ও বিভিন্ন ওস্তাদের নিকট লোক সংগীতের তালিম নেন। বিশেষ করে তিনি ওস্তাদ হাফিজুর রহমানের কাছে পল্লী গীতির ওপর তালিম নিয়ে ২০০৫ সালে বেসরকারি সংগীত বোর্ড ধ্রুব পরিষদের অধীনে লোকসংগীতের উপর প্রথম বিভাগে তৃতীয় স্থান অধিকার করেন। ২০০৯ সালে তার প্রথম এ্যালবাম ‘ও সোনা রে, প্রকাশিত হয়। সেসময় বেশ সাড়া ফেলে এ্যালবামটি। পরবর্তীতে সিডি চয়েজ হতে তার দ্বিতীয় এলবাম বের হয়। ভিন্ন আঙ্গিকের রোমান্টিকতার ছোঁয়ায় মিশ্রিত গান সম্বলিত এ্যালবামটি বিভিন্ন মহলে সাড়া ফেলে। একটা স্বপ্ন বাই শিশির এন্ড নির্ঝর ভিডিওটি ইউটিউবে দেয়া হলে সর্বমহলে হৈ-চৈ পড়ে যায়। বর্তমানে তার আরো একটি এ্যালবাম মুক্তি পেয়েছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ জি বাংলার সা রে গা মা পা এর চ্যাম্পিয়ান অন্বেষা দত্ত’র সাথে দ্বৈতকণ্ঠে নির্মিত হয়েছে জোসনার লুকোচুরি গানের ভিডিওটি। গানটির কথা লিখেছেন প্রখ্যাত গীতিকার দেলোয়ার আরজুদা শরফ, সুরারোপ করেছেন প্রখ্যাত সুরকার নাজির মাহমুদ, মিউজিক করেছেন মুশফিক লিটু। “মাই সাউন্ড” ব্যানার হতে গানটির শুভ মুক্তি পেয়েছে বলে শিল্পী শিশির জানিয়েছেন। গানটির চিত্রায়ন করা হয় প্রকৃতির নৈস্বর্গ বলে খ্যাত সিলেটের জাফলং-এ। মডেল হিসেবে অভিনয় করেছেন শান ও জেবিন। গানটি ইউটিউবে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে বলে জানিয়েছেন শিশির। শিল্পী ইসমাইল হোসেন শিশির জানান, সারাজীবন গানের জন্য কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে। গানের মাধ্যমে খুব সহজেই মানুষের অন্তরে ঠাঁই করে নেয়া যায়। তাই গানই আমার জীবন, গানই আমার পরম ভক্তির জায়গা। তিনি তার সাফল্যের জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন।

SHARE