কেসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিশাল টিম মাঠে নেমে শূন্যহাতে ফেরায় সমালোচনার ঝড়

খুলনা ব্যুরো॥ খুলনা সিটি কর্পোরেশনের (কেসিসি) উদ্যোগে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে বিশাল একটি টিম নগরীতে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনায় নামে কিন্তু শুন্য হাতে ফিরে আসার ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এনিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নাগরিক নেতারা।
কেসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম বিশ্বাসের নেতৃত্বে গাড়ীবহর নিয়ে বের হয় নগরীতে। ওই বহরে ছিলেন কেসিসির এষ্টেট অফিসার নুরুজ্জামান তালুকদার ও পুলিশের একটি টিম। তারা নগরীর রায়েরমহলে গিয়ে দেখে কতিপয় ব্যক্তি সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে গরু বিক্রি করার চেষ্টা করছে। এ সময় কেসিসির ভ্রাম্যমান আদালত ওই বিক্রেতাদের জোড়াগেট হাটে গিয়ে গরু বিক্রির জন্য বলেন। ভবিষ্যতে আর যাতে যেখানে সেখানে গরু বিক্রি না করেন তার জন্য সর্তক করে দিয়ে আসেন। এই ছিল ওই বিশাল টিমের অভিযানের ফলাফল। কিন্তু একটি অভিযান বের হতে গেলে অনেক নিয়ম কানুন মেনে তারপর বের হতে হয়। এই টিমের পিছনে অনেক টাকাও ব্যয় হয়। তারপরও তারা নগরীতে বের হয়ে শুণ্য হাতে ফিরে আসার বিষয়টি খুবই দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন নাগরিক নেতারা। কিন্তু তাদের চলার পথে অনেক অসংগতি দেখা মিললেও তারা নিরবে নগরভবনে ফিরে আসা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনের জেলা সাধারণ সম্পাদক এড. কুদরত ই খুদা জানান, একটি অভিযানে বের হওয়ার আগে তা অনুমোদনের ব্যাপার রয়েছে। রয়েছে পুলিশ আনার জন্য পত্র প্রেরণ, নাগরিক সেবা রেখে কর্মকর্তারা অভিযানে অংশ নেয়। তেল খরচের ব্যাপার। এত কিছুর পরও যদি একটি টিম অভিযানে নেমে হাজারো অসংগতি থাকা সত্বেও শূন্য হাতে ফিরে তাহলে তা হয় দুঃখজনক ব্যাপার। এটা কর্তব্যে গাফেলতি ছাড়া আর কিছু নয়। লোক দেখানো অভিযান চালিয়ে তারা নগরবাসীকে সন্তষ্ট করতে চায় বলে তিনি মনে করেন। নাগরিক নেতা এড. বাবুল হাওলাদার বলেন, সমগ্র নগরী জুড়ে ফুটপাত দখলকারীদের জন্য সাধারণ মানুষ মূল সড়ক দিয়ে চলাচল করছে। তথা কথিত রাজনৈতিক নেতাদের প্যানা ব্যানারে নগরীর অনেক গুরুত্বপূর্ণ মোড় ঢেকে রয়েছে। এসব পরিস্কার বা উচ্ছেদ করার দায়িত্ব কেসিসির। কিন্তু তারা অভিযানে নেমে মূল্যবান সময় নস্ট করে অর্থের তসরুপ করে শূন্য হাতে ফিরে আসে। এটা দায়িত্ব অবহেলাসহ আই ওয়াস বলে মনে করেন এই নাগরিক নেতা। এষ্টেট অফিসার নুরুজ্জামান তালুকদার বলেন, তাদের সাথে মোট দু’টি গাড়ী ছিল। কোন বহর নয়।
এ ব্যাপারে কথা হয় কেসিসির প্রধান রাজস্ব অফিসার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা আরিফ নাজমুল হাসানের সাথে। তিনি জানান, টিমটি কেন নেমেছিল। কি তাদের উদ্দেশ্য ছিল তা আমার জানা নেই। বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে জানানো যাবে।

SHARE