যুদ্ধে এআই নিষিদ্ধে জাতিসংঘে বিশেষজ্ঞদের চিঠি

সামরিক বাহিনীতে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছেন, এলোন মাস্কসহ ১১৫ প্রযুক্তিবিদ। এজন্য তারা জাতিসংঘের কাছে একটি খোলা চিঠি পাঠিয়েছেন।

জাতিসংঘ যুদ্ধাস্ত্র যেমন ড্রোন, ট্যাংক ও স্বয়ংক্রিয় মেশিন গানের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক আলোচনা করার ব্যাপারে সম্প্রতি মত দিয়েছে।

এরপরই ২৬ টি দেশের একশ’টি কোম্পানির সিইও, প্রতিষ্ঠাতা, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) ও রোবোটিক্স বিশেষজ্ঞ জাতিসংঘের কাছে চিঠি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন। তাদের সেই চিঠি প্রকাশে করে সংবাদ মাধ্যম ফিউচার অব লাইফ ইনস্টিটিউট।

প্রযুক্তিবিদরা লেখেন, আগামীতে স্বয়ংক্রিয় মরণাস্ত্র যুদ্ধক্ষেত্রে তৃতীয় বিপ্লব সৃষ্টির জন্য হুমকি স্বরূপ। একবার এগুলো তৈরি হয়ে গেলে যুদ্ধ ক্ষেত্রে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বহুগুণে বেড়ে যাবে।

সন্ত্রাসীদের হাতেও এই অস্ত্র পরতে পারে। এতে করে নিরীহ মানুষের আক্রান্ত হবে। এই অস্ত্রের বিরুদ্ধে এখনই যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। না হলে একবার এই প্যান্ডোরা বক্স খুলে গেলে এটা বন্ধ করা কঠিন হয়ে যাবে।

আনুষ্ঠানিকভাবে জাতিসংঘের কাছে এই চিঠি পাঠানোর আগে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ইন্টার ন্যাশনাল জয়েন্ট কনফারেন্স অন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সে (আইজেসিএআই২০১৭) একই বিষয়ে প্রযুক্তিবিদরা জনসম্মুখে কথা বলেন।

এআইয়ের মাত্রারিক্ত ব্যবহার সম্পর্কে বরাবরই সোচ্চার টেসলা প্রধান এলোন মাস্ক। সম্প্রতি তিনি এআইকে মানব সভ্যতার ‘অস্তিত্বের ওপরে হুমকি’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। তার মতে এআই পারমানবিক অস্ত্রের চেয়েও ভয়ংকর হতে পারে।

টেক শহর কনটেন্ট অবলম্বনে

SHARE