টার্গেট আসছে জাতীয় সংসদ নির্বাচন নড়াইল-২ আসনে নতুন মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ব্যাপক তৎপরতা

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি॥ আগামি জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে নড়াইল-২ (নড়াইল- লোহাগড়া) আসনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নতুন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছেন।
খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, সম্ভাব্য নতুন প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থীর সংখ্যাই বেশি। এছাড়া বিএনপি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি এবং জাতীয়পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা বিভিন্ন ইউনিয়ন ও গ্রামে কর্মীদের সাথে নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সম্ভাব্য প্রার্থীদের রঙ্গীন পোষ্টার ও ফেস্টুন রাস্তার মোড়ে মোড়ে শোভা পাচ্ছে। উল্লেখ্য আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নতুন মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে বেশ আলোচনায় রয়েছেন নড়াইল পৌর আওয়ামী লীগের বর্তমান সহসভাপতি ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান তাপস, বিশিষ্ট সমাজসেবক শিল্পপতি শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বাসুদেব ব্যানার্জী। অপরদিকে বিএনপির সম্ভাব্য নতুন প্রার্থীর মধ্যে বেশ আলোচনায় রয়েছেন মেজর (অবঃ) মঞ্জুরুল ইসলাম প্রিন্স। এছাড়া ২০দলীয় জোটের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে এন.পিপি’র সভাপতি চেয়ারম্যান ডঃ ফরিদুজ্জামান ফরহাদ ব্যাপক আলোচনায় রয়েছেন।
এদিকে নড়াইল-২ আসনে দলীয় টিকিট পাবেন এমন প্রত্যাশা নিয়েই নতুন প্রার্থীরা আগেভাগেই নানা সমাজসেবামূলক কর্মকান্ড, প্রচারপ্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। ধর্মীয় উৎসব, সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানকে পূঁজি করে তারা গরীব, অসহায় মানুষের মধ্যে নগদ টাকা শাড়ী, কাপড়, লুঙ্গি, চাঁদর, কম্বলসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় উপকরণ বিতরণ করছেন। সাধারন মানুষ ও ভোটাররা বলছেন, এলাকার উন্নয়নে কাজ করতে নতুনদের সুযোগ দেয়া উচিত। উল্লেখ্য এ আসনের অনেক সংসদ সদস্যর বিরুদ্ধে স্বজন প্রীতি, নিয়োগ বাণিজ্য, টিআর, কাবিখা প্রকল্পসহ বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের অর্থ লুটপাট, মাদক ও সন্ত্রাসীদের লালন-পালনের অভিযোগ রয়েছে।
জানাগেছে মনোনয়ন নিশ্চিত করতে এসব প্রার্থীরা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রভাবশালী নেতাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের মধ্যে গ্রুপিং বেশি চাঙ্গা। আর বিএনপির মধ্যে গ্রুপিং থাকলেও ততটা চোখেপড়ার মতো নয়। আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী শিল্পপতি শেখ মোঃ আমিনুর রহমান হিমু বলেন, সাধারণ মানুষের সেবা করছি। সাধারণ মানুষ বা দল আমাকে কি দেবে সেটা নিয়ে চিন্তা করিনা। মানুষ হিসাবে আরেকজন মানুষের পাশে থাকতে চাই। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান তাপস বলেন, সাধারণ মানুষের ন্যায্য পাওনা বুঝিয়ে দেবার জন্যেই রাজনীতি করছি। জন্মভুমি নড়াইলের মানুষের পাশে থেকে কাজ করছি কিছু পাবার আশায় নয়। জন্মভুমির সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করেছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসাবে সৎ ও ন্যায়ের পথে থেকে নড়াইলের ব্যাপক উন্নয়ন করতে চাই। এছাড়া আওয়ামীলীগের অপর প্রার্থী বাসুদেব ব্যানার্জী এবং বিএনপি ঘরানার প্রার্থী ডঃ ফরিদুজ্জামান ফরহাদ ও মেজর (অবঃ) মঞ্জুরুল ইসলাম প্রিন্স সাধারণ মানুষের সেবা ও এলাকার উন্নয়ন করতে চান। সবমিলিয়ে আসন্ন নির্বাচনকে নিয়ে রাজনীতির অঙ্গনে যেন উৎসব চলছে।

SHARE