ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার চুয়াডাঙ্গার সেই শিক্ষক বরখাস্ত

dhorshon

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার চুয়াডাঙ্গার ঝিনুক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আহাদ আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় বলে জানান কমিটির সভাপতি নুরুল ইসলাম।
এদিকে বৃহস্পতিবার ধর্ষণের শিকার মেয়েটি চুয়াডাঙ্গা মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে জবানবন্দি দেয় বলে জানান বাদীর আইনজীবী আলমগীর হোসেন।

পরে তাকে নাগরিক কমিটির জিম্মায় দেওয়া হলে ছাত্রীর অভিভাবকরা তাকে নিয়ে যান।
এদিকে ধর্ষণের বিচার দাবিতে চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ নিয়ে ‘শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী ধর্ষণের বিচার দাবিতে নাগরিক কমিটি’ নামের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সামাজিক সংগঠন লোকমোর্চার সভাপতি আলমগীর হোসেনকে আহ্বায়ক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি গঠন করা হয়।
নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক আলমগীর হোসেন বলেন, ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে বুধবার সন্ধ্যায় মেয়েটির ভগ্নিপতি বাদী হয়ে মামলা করলে রাতেই গ্রেপ্তার করা হয় শিক্ষক আহাদ আলীকে।
বৃহস্পতিবার বিকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
গত শুক্রবার বিকালে নিজ বাড়িতে প্রাইভেট পড়ানোর পর মেয়েটিকে আহাদ আলী ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ ওঠে। বুধবার ঘটনা জানাজানি হলে অভিভাবক ও স্থানীয়রা তাকে মারধর করে।

SHARE