আজ ভেড়ামরায় হযরত সোলাইমান শাহ্ চিশতীর (র.) আখেরী মোনাজাত

solaiman chicti rah
ভেড়ামারা প্রতিনিধি॥ আজ শনিবার কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার গোলাপনগরে আধ্যাত্মিক সাধক পুরুষ হযরত সোলাইমান শাহ্ চিশতী (র.) মাজারের ৩ দিনব্যাপী ওরশ মোবারক’র আখেরী মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। উৎসবমুখর পরিবেশে লাখো ভক্ত আশেকানরা ইতোমধ্যেই আসা শুরু করেছেন মাজার এলাকায়। লাখো মানুষের ঢল নেমেছে ভেড়ামারার পদ্মা নদীর পশ্চিম তীরে গোলাপনগরের হযরত সোলাইমান শাহ্ চিশতীর (র.) মাজার প্রাঙ্গণে।
আশেকান-ভক্ত ও দর্শনার্থীদের জন্য স্থানীয় প্রশাসন ও মাজার পরিচালনা কমিটি তিন স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনি গড়ে তুলে নিয়মিত তত্ত্বাবধায়ন করছেন। ১৯৭১ সালের ১২ এপ্রিল মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে পাক হানাদারদের বুলেটে শহীদ হন হযরত সোলাইমান শাহ্ চিশতীসহ (রঃ) ও তার ৬ সহচর। এরপর থেকেই সেখানে গড়ে ওঠে মাজার শরীফ। সারা দেশের এবং বিদেশের লাখ লাখ ভক্ত আশেকান প্রতি বছর চৈত্র মাসের ২৭, ২৮ ও ২৯ তারিখে তিন দিন দরবার শরীফে সমাবেত হন। ওরশকে ঘিরে প্রতিবছরের মতো এবারও লাখো ভক্ত আশেকানদের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে গোলাপনগর দরবার শরীফ। ভেড়ামারার পদ্মা নদীর পশ্চিম তীরে সবুজ গাছপালায় ঘেরা চরগোলাপনগর গ্রামের এক মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে ঘুমিয়ে আছেন এই আধ্যাত্মিক সাধক পুরুষ।ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মাজার কমিটির সভাপতি রেজাউল করিম বলেন, ‘সুষ্ঠু, সুন্দর ও মনোরম পরিবেশে ওরশ মোবারক সম্পন্ন করার জন্য ইতোমধ্যে মাজার কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিম ছাড়াও ৩ স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনি গড়ে তোলা হয়েছে। এ ছাড়াও যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেদিকে ল্য রাখতে সব সময় নজরদারি রাখাসহ সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি।

SHARE